Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২২:৫৪
আইপিএলে দল পাননি তামিমরা
ক্রীড়া ডেস্ক

ভারতীয় প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ—আইপিএলের দশম আসরের নিলাম হয়েছে গতকাল বেঙ্গালুরুতে। কিন্তু দল পাননি বাংলাদেশের ছয় ক্রিকেটার তামিম ইকবাল, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, এনামুল হক বিজয়, তাসকিন আহমেদ ও মেহেদী হাসান মিরাজ।

প্রত্যেকের বেইস প্রাইজ ছিল ৩০ লাখ রুপি। গতকাল অবিক্রীত রয়েছেন ইশান্ত শর্মা, জনি বেয়ারস্টো, অ্যালেক্স হেলস, কলিন মুনরো, ইমরান তাহিরের মতো তারকা ক্রিকেটাররাও। তবে গতকাল আইপিএলের নিলামে রেকর্ড দামে বিক্রি হয়েছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। ১৪ কোটি রুপি দিয়ে ইংলিশ তারকাকে কিনে নিয়েছে রাইজিং পুনে সুপার জায়ান্ট। বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৭ কোটির উপরে স্টোকসের দাম। অথচ তার বেইস প্রাইজ ছিল ২ কোটি রুপি।

চমক সৃষ্টি করেছেন আরেক ইংলিশ পেসার টাইমাল মিলস। যার বেইজ প্রাইজ ছিল মাত্র ৫০ লাখ রুপি, অথচ তাকে ১২ কোটি রুপিতে কিনে নিয়েছে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। বেইজ প্রাইজের ২৪ গুণ বেশি দামে বিক্রি হয়েছেন মিলস। দল পেয়েছেন আফগানিস্তানের অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবী ও ১৮ বছর বয়সী লেগ স্পিনার রশিদ খান। দুই আফগান তারকাকেই কিনে নিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সান রাইজার্স হায়দরাবাদ। নবীর মূল্য ৩০ লাখ কিন্তু রশিদ খানের মূল্য ৪ কোটি। এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতের ব্যাটসম্যান চিরাগ সুরীও দল পেয়েছেন। নেদারল্যান্ডের রায়ান টেন ডেসকাটের পর এবার প্রথম এক সঙ্গে আইসিসির অ্যাসোসিয়েট দেশের তিন ক্রিকেটার আইপিএলে সুযোগ পেলেন।

এবারও আইপিএলে বাংলাদেশের দুই প্রতিনিধিই থাকছেন। সাকিব খেলবেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। আর মুস্তাফিজুর রহমান খেলবেন সান রাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে। বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের অবিক্রীত থাকার পেছনে বড় কারণ হচ্ছে জাতীয় দলের শ্রীলঙ্কা সফর। ৬ এপ্রিল পর্যন্ত তামিমদের ব্যস্ত থাকতে হবে এই সফরে। ততদিনে আইপিএল শেষে পথে চলে যাবে। সে কারণেই বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের প্রতি তেমন আগ্রহ দেখায়নি আইপিএলের দলগুলো। যদিও এনামুল দলের বাইরে। তবে তামিম, সাব্বির ও মাহমুদুল্লাহর সম্ভাবনা বেশি ছিল।

সাকিব ও মুস্তাফিজের সঙ্গে কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সান রাইজার্স হায়দরাবাদের আগে থেকেই চুক্তি ছিল। আইপিএলের গত আসরে দুর্দান্ত বোলিং করে হায়দরাবাদের জয়ে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন কাটার মাস্টার। সে কারণেই তাকে রেখে দিয়েছে। তবে তা না হলে কে জানে হয়তো বেন স্টোকসকেও ছাড়িয়ে যেতে পারতেন মুস্তাফিজ। কেননা কাটার মাস্টারের দিকে সব দলেরই দৃষ্টি ছিল।

up-arrow