Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২২:৫২
বাংলাদেশের স্বপ্ন ভঙ্গ
মেয়েদের বিশ্বকাপ ভারতের
ক্রীড়া প্রতিবেদক
বাংলাদেশের স্বপ্ন ভঙ্গ
রোলবল বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইরানের কাছে হেরে কান্নায় ভেঙে পড়েন বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা —রোহেত রাজীব

খেলার ময়দান মুহূর্তেই রণাঙ্গনের রূপ নিল! এ যেন বাংলাদেশ-ইরানের মধ্যে যুদ্ধাবস্থা! মিরপুরের সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে একে-অপরের দিকে যুদ্ধংদেহী মনোভাব নিয়ে তেড়ে আসতে লাগল বাংলাদেশ ও ইরানের রোল বল খেলোয়াড়রা। বিশেষ করে বাংলাদেশ ডাগ-আউটের দিকে ইরানিদের তেড়ে আসতে দেখে মাইকে বার বার টেকনিক্যাল অফিসাররা সাবধান করতে লাগলেন।

এমন আচরণের কারণে দল সাসপেন্ড হয়ে যেতে পারে বলে ঘোষণা হতে লাগল। অবশেষে দুই দলের কর্মকর্তারা খেলোয়াড়দের নিবৃত্ত করেন।

ঘটনার সূত্রপাত বাংলাদেশের স্ট্রাইকার হৃদয়ের অশোভন অঙ্গ-ভঙ্গির মাধ্যমে। বাংলাদেশ-ইরান সেমিফাইনাল ম্যাচের মাত্র কয়েক মিনিট বাকি। বাংলাদেশ ৩-১১ গোলে পিছিয়ে। হৃদয়ের অশ্লীল ভঙ্গি মোটেও পছন্দ হয়নি ইরানের কোচ এবং খেলোয়াড় মোহাম্মদ রেজা শেখ জাফরির। তিনি হৃদয়কে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেন। এ ঘটনায় রেফারি লাল কার্ড দেন জাফরিকে। পরে মাঠের বাইরে বাংলাদেশ দলের ভারতীয় কোচ সুনীল ধাগে জাফরির সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে এক পর্যায়ে ইরানি কোচকে চড় মেরে বসেন। পুরো মিরপুর ইনডোর স্টেডিয়াম মুহূর্তেই স্তব্ধ হয়ে যায়! বিশৃঙ্খলা দেখা দেয় খেলোয়াড়দের মধ্যেও। তবে ঘটনাটা এখানেই শেষ হয়। পরবর্তীতে সাংবাদিকদের সামনে করজোড়ে ইরানি কোচের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করেন সুনীল ধাগে। এই ঘটনায় সুনীলের কী ধরনের শাস্তি হতে পারে? এই প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে স্কেটিং ফেডারেশনের সেক্রেটারি আহমেদ আসিফ হাসান বলেন, ‘দুঃখজনক ঘটনাটা আমরা শুনেছি। এ ব্যাপারে তদন্ত কমিটি দ্রুতই প্রতিবেদন দিবে। সবকিছু জানার পরই আমরা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিব। তবে ঘটনা সত্য হলে কঠোর শাস্তি পেতে হবে সুনীলকে। ’ ইরানের কোচ জাফরি ম্যাচ শেষে বলেন, ‘ঘটনাটি দুঃখজনক। তবে গোলের পর বাংলাদেশের খেলোয়াড় যে কাজটি করেছে, সে জন্য তাকে লাল কার্ড দেওয়া উচিত ছিল। কিন্তু রেফারি হলুদ কার্ড দিয়েছে। রেফারির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়েছি আমরা। ’ ইরানের কাছে সেমিফাইনালে ১১-৩ গোলে পরাজয়ের পর বাংলাদেশ তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে কেনিয়ার মুখোমুখি হয় বিকালে। সেমিফাইনালে কেনিয়াকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে ভারত। তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচেও বাংলাদেশ ব্যর্থ হয়। কেনিয়ার কাছে ৭-১ গোলে হেরে যান আসিফরা। বিশ্বকাপে ফাইনাল খেলার স্বপ্ন ভেঙে যায় ভক্তদের। অবশ্য এই অর্জনও কম নয়। খেলাধুলায় যে কোনো ইভেন্টের বিশ্বকাপে এই প্রথম বাংলাদেশ সেমিফাইনাল খেলেছে। রোল বল বিশ্বকাপেও এটাই বাংলাদেশের সেরা অর্জন। এর আগে ২০১৫ সালের রোল বল বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সপ্তম স্থান অধিকার করেছিল।

এদিকে গতকাল ভারতীয় মেয়েরা ফাইনালে ইরানি মেয়েদের ৬-৪ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ জয় করেছে। মেয়েদের বিশ্বকাপে ভারতের কাছে পরাজয়ের প্রতিশোধ কী নিতে পারবেন ইরানের ছেলেরা!

রোল বল বিশ্বকাপে স্বাগতিক বাংলাদেশের শুরুটা ছিল দারুণ। হংকংকে ১৯-১ ব্যবধানে উড়িয়ে রোল বল বিশ্বকাপের চতুর্থ আসর শুরু করা হৃদয়রা দ্বিতীয় ম্যাচে ভুটানকে হারিয়েছিল ৯-২ ব্যবধানে। এরপর মিয়ানমারকে ১১-০ গোলে উড়িয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করা আসিফরা ফিজিকে হারিয়ে পুল ‘ডি’ এর চ্যাম্পিয়ন হয়। চাইনিজ তাইপেকে ১২-১ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল বাংলাদেশ। এরপর নেপালকে ৬-৩ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো সেমিফাইনালে ওঠেন আসিফরা।

up-arrow