Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৪৩
ড্র হলো প্রস্তুতি ম্যাচ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
ড্র হলো প্রস্তুতি ম্যাচ

গল টেস্টের প্রস্তুতিটা ভালোভাবেই সেরে নিলেন লিটন কুমার দাস। ৭-১১ মার্চ গলে শুরু হবে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজের প্রথম টেস্ট।

এবার উইকেটের পেছনে গ্লাভস হাতে দাঁড়াবেন লিটন। টেস্ট শুরুর আগে শ্রীলঙ্কান প্রেসিডেন্ট একাদশের বিপক্ষে দুদিনের প্রস্তুতি ম্যাচটিতে ৫৭ রানের অপরাজিত ইনিংস এবং কিপিংয়ে একটি ক্যাচ নিয়ে ও একটি স্ট্যাম্পিং করে নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নিয়েছেন তিনি। প্রস্তুতি ম্যাচটি ড্র হয়েছে। তামিম ইকবালের সেঞ্চুরির জবাবে ১৯০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন স্বাগতিক দলের অধিনায়ক দিনেশ চন্ডিমল। ম্যাচের প্রথম দিন ৭ উইকেটে ৩৯১ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছিল টাইগাররা। গতকাল ৭ উইকেটে ৪০৩ রান তুলে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা।      

প্রথম দিন টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ২৬ রানে হারায় বাঁ হাতি ওপেনার সৌম্য সরকারকে। এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ১৪৩ রান করেন তামিম ও মুমিনুল। সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে, প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে রানে ফিরেছেন তামিম। সাবলীল ব্যাটিং করে খেলেছেন ১৩৬ রানের ইনিংস। ১৮২ বলের ইনিংসটিতে ছিল ৯টি চার ও ২টি ছক্কা। এই টানা ছক্কায় তিনি তিন অঙ্কের ঘরে পৌঁছান। বাঁ হাতি ওপেনার ৮৬ থেকে ১০০ রানে পৌঁছান টানা ৪, ৬ ও ৬ হাঁকিয়ে। তামিমের পথ অনসুরণ করে রিটায়ার্ড হার্ট হন মুমিনুল। ৭৩ রানের ইনিংসটি খেলে ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনিও। বড় অঙ্কের রান না করলেও ফর্মে থাকার ইঙ্গিত দিয়েছেন সাকিব আল হাসান ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। সাকিব সাজঘরে ফিরেন ৩০ রানে এবং মাহমুদুল্লাহ খেলেন ৪৩ রানের ইনিংস। লিটন ৫৭ রানের ইনিংসটি খেলেন ৬৪ বলে ১০ চারে।

কাল ব্যাটিংয়ে নেমে দুই পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদের বোলিং তোপে পড়ে প্রেসিডেন্ট একাদশ। ৩৯ রানে হারিয়ে বসে তিন ক্রিকেটার। টাইগারদের বোলিং আক্রমণ ঠাণ্ডা মাথায় সামলে চন্ডিমল ১৯০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন। ২৫৩ বলের ইনিংসটিতে ছিল ২১টি চার ও ৭টি ছক্কা। শেষ দিকে কারুণারত্নে ৫০ রানে অপরাজিত ছিলেন। দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের লম্বা পরিসরে খেলতে নেমে ভালোই করেছেন ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজুর রহমান। ১২ ওভারের স্পেলে ৪ মেডেন নিয়ে ২৮ রানে নেন ২ উইকেট। এর মধ্যে ওপেনার ফার্নান্দোকে ফিরতি ক্যাচ নেন। এ ছাড়া ফ্রান্সিকোকে কাটারে বোল্ড করেন। তবে স্বাগতিক দলের ইনিংসে প্রথম আঘাত হানেন ‘স্পিডস্টার’ তাসকিন। ৪১ রানের খরচে তাসকিন উইকেট নেন ৩টি। তিন স্পিনারের মধ্যে একমাত্র মেহেদি হাসান মিরাজ উইকেট পান। ১৩ ওভারে খরুচে বোলিং করে রান দেন ৬৮। তবে সবচেয়ে খরুচে বোলার ছিলেন বাঁ হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। ১২ ওভারে রান দেন ৭৯। সাকিব আল হাসান ১১ ওভারে ৪৯ রান দেন। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও সৌম্য সরকার ১৩ ওভারের স্পেলে ৫৯ রানে নেন এক উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ : প্রথম ইনিংস, ৩৯১/৭, ৯০ ওভার (তামিম ইকবাল ১৩৬, সৌম্য সরকার ৯, মুমিনুল হত ৭৩, মুশফিকুর রহিম ২১, সাকিব আল হাসান ৩০, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৪৩, লিটন দাস ৫৭*, মেহেদি হাসান মিরাজ ১, তাইজুল ইসলাম ৩ঁ। কারুণারত্নে ৩/৬১।

শ্রীলঙ্কা প্রেসিডেন্ট একাদশ : ৪০৩/৭, ৯০ ওভার (চন্দ্রগুপ্ত ২০, দিনেশ চন্ডিমল ১৯০*, সিলভা ৩৮, বুদ্দিকা ৩২, ফ্রান্সিককো ২৭, ডি সিলভা ৩২, কারুণারত্নে ৫০*। মুস্তাফিজুর রহমান ২/২৮, তাসকিন আহমেদ ৩/৪১, মেহেদি হাসান মিরাজ ১/৬৮, সৌম্য সরকার ১/৬৩)।

up-arrow