Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৪৫
হলো না স্বপ্ন পূরণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
হলো না স্বপ্ন পূরণ
কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায়ের পর হতাশ বাংলাদেশ হকি দল

হলো না স্বপ্ন পূরণ জিমিদের। ওয়ার্ল্ড হকি লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেই বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ।

গতকাল মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত শেষ আটের লড়াইয়ে বাংলাদেশ ১-৫ গোলে হেরে যায় মিসরের কাছে। গ্রুপ পর্বে আগের ম্যাচে ওমানের কাছে হারায় কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ শক্তিশালী মিসরের বিপক্ষে মুখোমুখি হয়। তবে আশা ছিল জিমি, চয়নদের উজ্জীবিত নৈপুণ্যের কাছে আফ্রিকার এই দেশটি ধরাশায়ী হবে। কিন্তু বাস্তব যে কতটা কঠিন তা মাঠে নেমে টের পেল লাল-সবুজের দল।

সত্যি বলতে কি হকিতে মিসরের শক্তি সম্পর্কে ততটা ধারণা ছিল না জিমিদের। এর আগে ২০০১ সালে একবারই মুখোমুখি হয়। ম্যাচে মিসর ২-১ গোলে জয়ী হয়। তবে কাগজে-কলমে মিসরই ছিল ফেবারিট। র্যাঙ্কিংয়ে তা স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল। তারপরও হারলেই বিদায় সে কারণে হকিপ্রেমীদের আশা ছিল বাংলাদেশ জানপ্রাণ দিয়ে লড়বে। কিন্তু মিসরের চমত্কার স্ট্রিক ওয়ার্কের কাছে দাঁড়াতে পারেননি জিমিরা। স্বপ্ন ছিল ফাইনালে উঠে প্রথমবারের মতো ওয়ার্ল্ড হকি লিগের তৃতীয় রাউন্ডে খেলবে। সেই স্বপ্ন আর পূরণ হলো না জিমিদের। ফাইনাল তো দূরের কথা সেমিফাইনালের উঠতে পারল না বাংলাদেশ। এখন দর্শক হয়েই সেমি আর ফাইনালে বসে থাকতে হবে।

জার্মান কোচ অলিভার কার্টেজ হংকংয়ে এইচআইএফএ শিরোপা জিতে আশার বাণী শুনিয়ে ছিলেন। বলেছিলেন বাংলাদেশের এই দল নিয়ে ঘরে মাঠে ওয়ার্ল্ড হকি লিগে ফাইনাল খেলা সম্ভব। কিন্তু হকিতে বাংলাদেশের সামর্থ্য কতটুকু বুঝা গেল কাল শোচনীয় হারে। এখন পঞ্চম স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লড়তে হবে বাংলাদেশকে।

শুরু থেকেই চাপ অব্যাহত রাখে মিসর। চার মিনিটেই তারা এগিয়ে যায়। আমর সাইদের পুশ, আতিক করিমের স্ট্রপের পর মাহমুদের হিট জালে প্রবেশ করে। দ্বিতীয় কোয়ার্টারে দ্বিতীয় মিনিটেই মিসরের পক্ষে ব্যবধান বাড়ান আমর সাইদ। ১৯ মিনিটে কৌশিক গোল করলে নীরব গ্যালারি জেগে ওঠে। লাভ হয়নি এতে, গোল খেয়ে বরং আরও হিংস  হয়ে ওঠে মিসর। ২৯ মিনিটে জামাল মিসরের পক্ষে তৃতীয় গোল করেন। ৩৩ ও ৩৫ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি বাংলাদেশ। ৪৯ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে ঠাণ্ডা মাথায় গোল করেন আমর সাইদ। ৫৫ মিনিটে হাসান মোহাম্মদ গোল করলে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মিসর। এদিকে সেমিফাইনালে উঠেছে ওমান, মালয়েশিয়া ও চীন। ওমান ৪-৩ ঘানা, মালয়েশিয়া ৫-২ শ্রীলঙ্কা ও চীন ১৭-০ গোলে ফিজিকে পরাজিত করে। বাংলাদেশ সেমিতে উঠতে না পারায় আসর হয়ে পড়ল আকর্ষণহীন। দর্শকরা এখন খেলা দেখতে আসবেন কিনা তা দেখার বিষয়।

up-arrow