Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৫১
নিজের ওপর আস্থা আছে কোহলির
ক্রীড়া ডেস্ক

পুনেতে পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়েছিল ভারত। খাঁদের কিনারায় চলে আসা ভারত ঘুরে দাঁড়ায় বেঙ্গালুরুতে।

চার টেস্ট ম্যাচের সিরিজে এখন সমতা। টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দল ভারত এখন লড়বে সিরিজে এগিয়ে যেতে। এগিয়ে যেতে লড়াই করবে অস্ট্রেলিয়াও। ঝাড়খণ্ডের রাঁচিতে তৃতীয় টেস্ট খেলতে নামার আগে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি সেরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারের পুরস্কার পেলেন। পুরস্কারটি পেলেন নিজ দেশের ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই থেকে। পলি উমরিগর পুরস্কার হাতে নেওয়ার সময়ই বলেছেন, তার সাফল্যের মূলমন্ত্র। ছোটবেলা থেকেই চেয়েছেন বিশ্বসেরা হতে। এই চাওয়াই তাকে আজ বিশ্বসেরা করেছে। করেছে ভারতের এই মুহূর্তের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিকেটার। ভারতে সিরিজে ফিরলেও ব্যাট হাতে জ্বলে উঠতে পারেননি কোহলি। কিন্তু তাতে কি? ভারতীয় অধিনায়ককে পুরনো রূপে দেখা গেছে। আগ্রাসী মেজাজে। এক একটি অসি উইকেটের পতন হয়েছে, আর রুদ্রমূর্তি ধারণ করেছেন কোহলি। পলি উমরিগর পুরস্কার নেওয়ার সময় ভারতীয় অধিনায়ক নিজের বিশ্বসেরা হওয়ার ব্যাখ্যায় বলেন, ‘আমি সব সময়ই বিশ্বের সেরা ক্রিকেটারদের তালিকায় থাকতে চেয়েছিলাম। বিশ্বসেরা হতে হলে যে সব ফরম্যাটের ক্রিকেটেই সেরা ফর্ম ধরে রাখতে হবে, সেটাও বুঝে গিয়েছিলাম। তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটের মধ্যে যে সময় পাওয়া যায় সেটাই সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ। ওটাকেই কাজে লাগিয়ে এগিয়ে নিয়ে যেতে হয় দেশকে। ’ নিজের সাফল্যের মূলমন্ত্র কি, সেটা নিয়ে কথা বলার পাশাপাশি সমালোচকদেরও জবাব দেন তীক্ষভাবে, ‘আমার ক্রিকেট এতদিনকার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে অনেককে দেখেছি, যারা আমার খেলা নিয়ে কথা বলেছেন। এখনো তারা আমার সমালোচনা করেন। কিন্তু আমি সব সময়ই নিজেকে বিশ্বাস করি। ’ গত এক বছর নিজের ক্যারিয়ারের সেরা সময় বললেন কোহলি, ‘শেষ ১০-১২ মাস অপ্রত্যাশিতভাবে ভালো কেটেছে আমার। ২০১৫ থেকে ২০১৬-র শেষ পর্যন্ত আমার জীবনের সেরা সময় বলাই যায়। সাফল্য পেতে আমি কঠোর পরিশ্রম, নিয়মিত অনুশীলন করেছি।

up-arrow