Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১২ এপ্রিল, ২০১৭ ২৩:১৬
বার্সেলোনার দুঃস্বপ্নের রাত
রাশেদুর রহমান
বার্সেলোনার দুঃস্বপ্নের রাত
গোলের পর আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো ডিবালাকে ঘিরে উৎসবে মেতেছে জুভেন্টাসের ফুটবলাররা —এএফপি
bd-pratidin

দুই বছর আগের কথা। বার্লিনের অলিম্পিয়া স্টেডিয়ামে রাকিটিচ, সুয়ারেজ আর নেইমারের গোলে ৩-১ ব্যবধানে জুভেন্টাসকে হারিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের পঞ্চম শিরোপা জয় করেছিল বার্সেলোনা। নিজেদের মাটিতে সেই বার্সেলোনার মুখোমুখি হয়ে সম্ভবত প্রতিশোধপ্রবণ হয়ে উঠেছিল জুভেন্টাস! গুনে গুনে ঠিক তিনটা গোলই দিল তারা বার্সেলোনার জালে। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে বার্সেলোনাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে জুভেন্টাস। দুটি গোল করলেন আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো ডিবালা। এছাড়াও একটি গোল করেছেন চিয়েল্লিনি।

ম্যাচের সপ্তম মিনিটেই ডিবালার গোলে এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। ২২তম মিনিটে আরও একটি গোল করেন ডিবালা। ৫৫তম মিনিটে দলের পক্ষে তৃতীয় গোলটি করেন চিয়েল্লিনি। কী অবাক ব্যাপার তাকে বিজয়ী অভিনন্দন জানালেন লুইস সুয়ারেজ। বিশ্বকাপে চিয়েল্লিনিকে কামড় দিয়েই ১০ ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন লুইস সুয়ারেজ। এতদিনে অবশ্য সব ভুলে গেছেন দুজনই। সুয়ারেজের অভিনন্দন পেয়ে খুশিই হয়েছেন চিয়েল্লিনি।

বার্সেলোনার জন্য এবারের কাজ বেশ কঠিন হয়ে গেল। অ্যাওয়ে ম্যাচে গোল না পাওয়ায় সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার জন্য দ্বিতীয় লেগে কমপক্ষে ৪-০ গোলে জিততে হবে কাতালানদের। কোচ লুইস এনরিকেই বলছেন, এবার ঘুরে দাঁড়ানো বেশ কঠিন হবে। পিএসজির বিপক্ষে প্রথম লেগে ৪-০ গোলে হেরেও দ্বিতীয় লেগে ৬-১ গোলের জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল বার্সেলোনা। সেই একই ইতিহাস কী আবারও গড়তে পারবে বার্সেলোনা! গত মঙ্গলবার বার্সেলোনা যেন নিজেদের ছায়া হয়েই ছিল। বার বার সুযোগ পেয়েও ব্যর্থ মেসি-নেইমার-সুয়ারেজরা ব্যর্থ হয়েছেন গোল করতে। আর বার্সার ডিফেন্স লাইন ব্যর্থ হয়েছে ডিবালাদের রুখতে। দ্বিতীয় লেগ ঠিক কতোটা কঠিন হতে পারে বার্সেলোনার জন্য! আগামী সপ্তাহে ন্যু ক্যাম্পে জুভেন্টাস যাবে রক্ষণশীল নীতি নিয়ে। যে কোনো মূল্যে তারা বার্সেলোনার আক্রমণভাগ রুখবার চেষ্টা করবে। বর্তমানে জুভেন্টাসের ডিফেন্স লাইনটাই ক্লাব ফুটবলের সেরা। এই ডিফেন্স লাইন ভাঙা কী সম্ভব হবে বিশ্বসেরা আক্রমণভাগের পক্ষে! বার্সেলোনার কোচ লুইস এনরিকে বলছেন, ‘ঘুরে দাঁড়ানোর কথা চিন্তা করাও কঠিন। কিন্তু আমরা ফিরে আসার চেষ্টা করব।’ লুইস এনরিকের কথাগুলো ভক্তদের জন্য সান্ত্বনার বাণী হিসেবে ভালোই। কিন্তু পিএসজি আর জুভেন্টাস একই রকম নয়। ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের কেবল বর্তমানটাই উজ্জ্বল নয়, অতীতটাও সোনার হরফে লেখা। বার্সেলোনা এবার সত্যিই বড় বিপদে পড়ে গেল।

এদিকে বার্সেলোনার বিপক্ষে দুরন্ত জয়ে উচ্ছ্বসিত জুভেন্টাস আছে মহা আনন্দে। সতীর্থদের প্রশংসা করতে গিয়ে অধিনায়ক জিয়ানলুইগি বুফন তো বলেই দিয়েছেন, ‘ডিবালা বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার।’ বার্সেলোনার বিপক্ষে দারুণ জয়ের পর জুভেন্টাসের ফুটবলাররা এমন শ্রেষ্ঠত্বের দাবি করতে পারেন বৈকি!

এই পাতার আরো খবর
up-arrow