Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ জুন, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ জুন, ২০১৭ ২৩:৫৫
তোপের মুখে কোহলি
ক্রীড়া ডেস্ক
তোপের মুখে কোহলি
একেই বলে কপাল। ভেবেছিলেন শিরোপার ট্রফি তারই হাতে উঠবে। কিন্তু ফাইনালে ট্রফির পাশ দিয়েই হেঁটে থামতে হলো কোহলিকে —ক্রিকইনফো

নেতৃত্ব হারাচ্ছে কি বিরাট কোহলি? গোটা ভারত জুড়েই এখন এই প্রশ্ন। ফাইনালে জয়-পরাজয় থাকবে, তাতে নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠবে কেন? আসলেও পাকিস্তানের কাছে ভারতের হারটা নতুন নয়। ১৯৭৮ সাল থেকে ওয়ানডেতে লড়াইয়ের পর পরিসংখ্যানে পাকিস্তানই এগিয়ে। তারপরও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির হারকে ভারতীয়রা স্বাভাবিকভাবে নিতে পারছে না। আসলে এমন জয় পাকিস্তানও ভাবেনি। ৩৩৮ রান গড়ার পরও অনেকে ভেবেছিলেন ভারতের যে ব্যাটিং লাইনআপ তাতে এই টার্গেট ঠিকই পার করবে। কিন্তু ১৫৮ রানেই ভারত গুটিয়ে যাবে তা কি ভাবা যায়। ১৮০ রানে হার। ক্রিকেটে এর চেয়েও বিশাল ব্যবধানে হারের রেকর্ড রয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান বর্তমানে কি এমন দল যে ২৫০ রানও তোলা যাবে না। নানা প্রশ্ন ও আক্ষেপে পুড়ছে ভারতীয়রা।

ভারত চ্যাম্পিয়ন হলে কোহলি যে প্রশংসায় ভাসতেন তা নিয়ে সংশয় নেই। কিন্তু হারের পর তিরস্কারে ভাসছেন। ওভালে পাকিস্তানি সমর্থকরা যেমন বিজয় মিছিল বের করেছে। তেমনিভাবে ভারতীয়রা ক্ষুব্ধ। অনেকেই বলছেন, যোগ্য নেতৃত্বের অভাবে ভারতের বিপর্যয় ঘটেছে। ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটাররা এখনো সেভাবে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেননি। কিন্তু ওভালে ফাইনাল দেখার সময় শচিন টেন্ডুলকারের চেহারা বলে দিচ্ছিল তিনি কোহলিদের পারফরম্যান্সে কতটা বিরক্ত। ম্যাচের পর কোহলি বলেছেন, সত্যিই পাকিস্তান ভালো খেলেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং কোনো ডিপার্টমেন্টে ভারত জ্বলে উঠতে পারেনি।

কোহলির এমন সত্য কথাও মন গলাতে পারেনি। অধিকাংশ ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমী মনে করেন এমন হারের জন্য কোহলিই দায়ী। শুধু তাই নয়, ভারতের ক্রিকেটে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা চাচ্ছেন দলে অন্তত ওয়ানডে নেতৃত্ব বদলানো হোক। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড স্বাভাবিক কারণেই এসব নিয়ে মুখ খুলবে না। তবে বিভিন্ন মিডিয়া উল্লেখ করেছে, কোহলি খুবই উঁচুমানের ক্রিকেটার। কিন্তু ভারতের মতো দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্যতা এখনো হয়নি। ধোনিই ছিলেন সেরা। যাক, ধোনিতো স্বেচ্ছায় নেতৃত্ব ছেড়েছেন। তাই তার নেতৃত্ব নেওয়ার প্রশ্ন ওঠে না। যদি কোহলিকে সরানো হয় তাহলে ওয়ানডেতে কে হবেন অধিনায়ক।

এক্ষেত্রে রোহিত শর্মা ও শেখর ধাওয়ানের নাম উচ্চারিত হচ্ছে। তবে ভারতের সাবেক অধিনায়ক বলেছেন, কোহলিই অধিনায়ক থাকুক। তবে মাঠে তার স্বভাব বদলাতে হবে। যা ক্রিকেটে ভদ্র দর্শকরা মানতে পারছেন না।

up-arrow