Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:১৮

অধিনায়ক নিয়েই যত আলোচনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

অধিনায়ক নিয়েই যত আলোচনা
ত্রি-দেশীয় ও টেস্ট সিরিজে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে গেছে বাংলাদেশ। এখন টি-২০তে ঘুরে দাঁড়াতে চায়। অনুশীলনে ব্যস্ত টাইগাররা —বাংলাদেশ প্রতিদিন

টি-২০তে সাকিব আল হাসান অধিনায়ক, তামিম ইকবাল সহঅধিনায়ক! কিন্তু ইনজুরির কারণে টি-২০তে খেলতে পারছেন না সাকিব আল হাসান। তাই তামিম অধিনায়ক হবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু গতকাল যখন তামিম মিডিয়ায় কথা বলতে আসেন তখনই কৌতুহলের সৃষ্টি হয়! কেন না ম্যাচের আগের দিন অধিনায়কের আসার কথা মিডিয়ার সামনে। সেখানে কেন একদিন আগেই তামিম আসবেন? তখন আর বুঝতে বাকি থাকে না টি-২০তে তামিম অধিনায়ক নন!

তাহলে অধিনায়ক কে? প্রথম টি-২০ ম্যাচের ৪৮ ঘণ্টা আগেও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড টাইগার ক্যাপ্টেনের নাম জানাতে পারেনি। গতকাল বাংলাদেশ দলের অনুশীলন শুরু হয় বিকাল ৪টায়। তার আগে মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেন তামিম। সেখানেই তাকে জিজ্ঞেস করা হয়, টি-২০তে বাংলাদেশের অধিনায়ক কে? এমন প্রশ্ন তামিমের কাছে যেন ‘কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা’! বুকে কষ্ট চাপা রেখে তামিম যেন স্বাভাবিকভাবেই উত্তর দেন, ‘আমার বলার কিছু নেই। অধিনায়ক যারা ঠিক করেন উনারা বলতে পারবেন। এটা নিয়ে এতটুকু বলতে পারি আমাদের দল থেমে আছে তা নয়। যে ক্যাপ্টেন হোক না কেন, সেটা আলাদা ব্যাপার। আমরা চেষ্টা করছি, ব্যক্তিগত ও দল হিসেবে যতটুকু ভালো করা দরকার। ওয়ানডেতে যে ভুল করেছি, সেটা যেন আর না হয়। আমাদের পারফর্ম করতে হবে। কে অধিনায়ক হবেন, সেটা এই মুহূর্তে একদমই গুরুত্বপূর্ণ নয়।’

গতকাল সন্ধ্যা পৌনে সাতটায় বিসিবি মেইল করে জানিয়ে দেয়, প্রথম টি-২০র জন্য অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের নাম। সেখানে ১৫ সদস্যের একটা দলও দেওয়া হয়। সাকিব আল হাসানের পরিবর্তে দলে নেওয়া হয়েছে নাজমুল ইসলাম অপুকে। সব শেষ বিপিএলে দারুণ পারফর্ম করেছেন রংপুর রাইডার্সের হয়ে। নিয়েছেন ১২ উইকেট। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে সব শেষ ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডির হয়ে ২১ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। তাই লঙ্কানদের বিরুদ্ধে সাকিবের জায়গা দলে সুযোগ পেয়েছেন এই বাঁহাতি স্পিনার। নাজমুলসহ টি-২০ দলে ৫ জন নতুন মুখ। আবু জায়েদ রাহী, আরিফুল ইসলাম, জাকির হোসেন ও আফিফ হোসেন প্রথমবারের মতো দলে জায়গা করে নিয়েছেন। ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজে হারের পর নতুনদের নিয়েই পরিকল্পনা সাজাচ্ছে বাংলাদেশ। তুনদের সম্পর্কে তামিম বলেন, ‘স্পেশালি রাহি আমার কাছে মনে হয় ওয়েল ডিজার্ভিং। কারণ বোলিংয়ের দিক থেকে শেষ দুই বছরে বিপিএলে টপ পারফর্মার। দলে সুযোগ পাওয়াটা তার প্রাপ্য। আরিফুল হকও শেষ দুই তিন বছর ধরে বিপিএলে সমানভাবে ভালো খেলে যাচ্ছে। সে দারুণভাবে খেলা ফিনিশ করতে পারে।  যারা আরও নতুন আছেন, একজন আমার সঙ্গে খেলেছেন আমি মনে করি হি হ্যাজ অ্যা ভেরি বিগ হার্ট। তবে এ বিষয়ে আমি নিশ্চিত যোগ্যরাই সুযোগ পেয়েছেন।’ বাংলাদেশ দলে একটা বড় সমস্যা হচ্ছে, ওপেনিংয়ে তামিমের যোগ্য সঙ্গী নেই। কখনো ইমরুল , কখনো বিজয় আবার কখনো সৌম্য সরকার। ফর্মহীনতার জন্য টেস্ট সিরিজে বাদ পড়লেও টি-২০তে ফিরেছেন সৌম্য সরকার। তামিম মনে করেন, কোনো ইনিংসের শুরুটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, ‘শুরু তো আসলে সব ফর্মেই গুরুত্বপূর্ণ। হয় আমরা ব্যাটিং পার্টে ভালো স্টার্ট করি, বা বোলিং পার্টে করি। বিশেষ করে বাংলাদেশ ব্যাটিং বা বোলিং যখন ভালো শুরু করি, ওই সময় বেশির ভাগ সময়ই ভালো হয়। ব্যাটিং বা বোলিং, শুরুটা সব জায়গাতেই গুরুত্বপূর্ণ।’ টি-২০ ক্রিকেটে রান তুলতে হয় দ্রুত। বল ডট করার কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু অনেক সময় দেখা যায় বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা ছক্কা হাঁকানোর পর ডট বল দিয়ে দেন। এ সম্পর্কে তামিমের ব্যাখ্যা, ‘ছয় মারার পর ডট কোনো বড় সমস্যা নয়। আমার ব্যক্তিগতভাবে মনে হয়, সমস্যা টি-২০তে শুরুটাই আমাদের জন্য কঠিন। ওপেনার হিসেবে ব্যাট করতে নেমে আপনাকে শুরু থেকেই উইকেটটা স্যাক্রিফাইস করার জন্য তৈরি থাকতে হবে। প্রথম ছয় ওভারে আপনি মারতে গেলে আউট হতেই পারেন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো, ৩০-৪০ হলে আমাদের ৬০-৭০ করতে হবে। এই জায়গাতেই আমাদের একটু ঘাটতি আছে।’


আপনার মন্তব্য