Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:৪০
বসুন্ধরা কিংস নিয়ে আশাবাদী অস্কার
রাশেদুর রহমান
বসুন্ধরা কিংস নিয়ে আশাবাদী অস্কার
বসুন্ধরা কিংসের স্প্যানিশ কোচ অস্কারের প্রথম দিন। অনুশীলনে শিষ্যদের পরখ করে নিচ্ছেন তিনি —রোহেত রাজিব

‘ভুল করলে আমি কিছু মনে করবো না। কিন্তু অলস হয়ে কেউ বসে থাকবে না।’ অলসতা যে বসুন্ধরা কিংসের স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজোন ব্যারেরাস মোটেও পছন্দ করেন না। তা বোঝা গেল অনুশীলন শুরু হতেই। সবুজ-শ্যামল মাঠ আর কাশফুলের শুভ্রতার মধ্যে অস্কার তার নতুন শিষ্যদের নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করলেন। গতকালই এই স্প্যানিশ কোচের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে বসুন্ধরা কিংস। চুক্তিবদ্ধ হয়ে আর দেরি করেননি। সঙ্গে সঙ্গেই ছুটে যান অনুশীলন মাঠে। বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত শহুরে কোলাহলমুক্ত মাঠে অনুশীলনে নেমেই অস্কার তার পরিচিতিটা তুলে ধরলেন। প্রথমে বলসহ মাঠে পাঁচটা চক্কর দিলেন বসুন্ধরা কিংসের ২৭ জন ফুটবলার। বেশ কিছুক্ষণের শারীরিক কসরত। তারপর বিভিন্ন পদ্ধতিতে শিষ্যদের নিয়ে পরীক্ষায় মেতে ওঠা। এসবের মধ্যে কোনো বিরতি নেই। এমনকি কঠোর পরিশ্রমী বিদেশি ফুটবলাররাও অস্কারের কঠিন পরীক্ষার সামনে ঘেমে-নেয়ে একাকার হয়ে উঠলেন। অনুশীলন দেখতে মাঠে হাজির বসুন্ধরা কিংসের সভাপতি ইমরুল হাসান ও সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল ইসলামসহ অন্য কর্মকর্তারা। পেশাদার লিগে প্রথমবারের মতো অংশ নিবে দলটা। সৃষ্টিকর্তার কাছে সাফল্য কামনা করে সবাই মিলে দোয়া করলেন। তারপর অনুশীলন দেখতে লাগলেন তারা। ইমরুল হাসান বলেন, ‘দলে চারজন বিদেশি ফুটবলার আছে। ট্রায়ালে তাদেরকে দেখছি আমরা। পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তাদের ব্যাপারে।’ এছাড়াও বিশ্বকাপ খেলা ফুটবলার দলে নেওয়ার ব্যাপারেও আশাবাদী তিনি। তিলে তিলে দারুণ একটা দল গড়ে তুলতে পেরে গর্বিত ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল ইসলাম মিনহাজও। অনুশীলনের আগে ইমরুল হাসান ও মিনহাজের উপস্থিতিতে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন অস্কার। বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো কোন দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিলেন স্প্যানিশ কোচ অস্কার। তবে তিনি বাংলাদেশে মোটেও নতুন নন। মালদ্বীপের দল নিউ রেডিয়েন্টের কোচ হিসেবে তিনি বাংলাদেশে এসেছেন। এএফসি কাপে ঢাকা আবাহনীর মুখোমুখি হয়েছে তার দল। সাইফ স্পোর্টিংকেও খেলতে দেখেছেন তিনি। তাছাড়া শেখ জামাল, শেখ রাসেল এবং মোহামেডান সম্পর্কেও ভালো ধারণা আছে অস্কারের। তিনি বলেন, ‘আমরা নতুন দল হিসেবে প্রিমিয়ার লিগে খেলব। এটা একটা চ্যালেঞ্জিং মৌসুম হবে। তবে এই দলটা খুবই উঁচু আশা পোষণ করে। শিরোপা জয়টাই আমাদের লক্ষ্য।’ লা লিগার ক্লাব সেল্টা ভিগোর যুব দলে কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ২০০৯-১১ সালে। সেল্টা ভিগোর কোচ লুইস এনরিকেই পরবর্তীতে বার্সেলোনার কোচ হয়েছিলেন। এই ক্লাবটা বর্তমানে লা লিগায় দুর্দান্ত খেলছে। এমনকি বার্সেলোনা এবং রিয়াল মাদ্রিদের মতো ক্লাবও তাদের বিপক্ষে খেলতে নামার আগে কঠোর প্রস্তুতি নিতে ভুলে না। সেই দলের কোচ অস্কার। বসুন্ধরা কিংসকে এবার শিরোপা উপহার দিতেই এসেছেন তিনি। অনুশীলনের প্রথমদিনে অবশ্য সবাইকে পাননি অস্কার। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে জাতীয় দলে খেলছেন জনি, ইমন, সুফিলরা। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ভুটানের বিপক্ষে তাদেরকে খেলতে দেখে খুবই খুশি অস্কার। তিনি বলেন, ‘আমি ইমন ও সুফিলের খেলা দেখেছি। ওরা দারুণ ফুটবল খেলে। ওদেরকে দলে পেয়ে আমি আনন্দিত।’ দলটা দারুণ। কোচও অভিজ্ঞ। মাঠে নামার প্রস্তুতি প্রায় শেষ করে এনেছে বসুন্ধরা কিংস। কোচ অস্কার বসুন্ধরা কিংসকে নিয়ে দারুণ আশাবাদী। ছয় সপ্তাহের অনুশীলন শুরু হয়েছে গতকাল থেকে। এবার আসল লড়াইয়ের অপেক্ষা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow