Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:৪২
মারিয়ারা যখন অনুপ্রেরণা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
bd-pratidin

লড়াই পুরুষ জাতীয় দলের। অথচ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে পাকিস্তানের বিপক্ষে আজকের ম্যাচে অনুপ্রেরণা হতে পারে নারী ফুটবলার মারিয়ারা। কেননা সম্প্রতি ভুটানে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের কিশোরীরা পাকিস্তানকে বিধ্বস্ত করেছিল ১৪-০ গোলে। এই হারই ফুটবল ইতিহাসে পাকিস্তানের বড় লজ্জার। অন্যদিকে ক্রিকেটে ওয়ানডেতে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করলেও ১৪ গোলের মতো ক্রীড়াঙ্গনে আলোচিত হয়নি। কেননা পাকিস্তানের কোনো ফুটবল দলকে নিয়ে এমন ছেলেখেলাটা কেউ ভাবতেও পারেনি। সেই অবিস্মরণীয় জয়ে নতুন এক ইতিহাস গড়ে ফেলে মারিয়ারা।

১২তম সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ আজ গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে লড়বে। জামাল, সুফিলরা যখন মাঠে নামবে তখন মারিয়াদের সেই চমক দেখানো ম্যাচের কথা ঠিকই মনে রাখবেন। ১৪ গোলের স্মরণীয় জয়টা অনুপ্রেরণা হিসেবেই কাজ করবে। শক্তিও জোগাবে দারুণভাবে। পুরুষ ফুটবলের পরিসংখ্যান বা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে থাকলেও সর্বোচ্চ গোলের ব্যবধান ৪-০।

অনুপ্রেরণার পাশাপাশি জামালদের ভিতরে হয়তো জেদও কাজ করবে। মেয়েরা পারলে তারা কেন পারবে না। যদিও পুরুষ ফুটবলের সঙ্গে নারীদের তুলনা করাটা ঠিক হবে না। তবু গোল বলে যত কথা। মারিয়ারা ১৪-০ গোলে জেতার পর দেশজুড়ে প্রশংসা পেয়েছেন। পুরুষ ফুটবলে এক সময় প্রতিপক্ষদের গোলের বন্যায় ভাসালেও এখনতো গোল উৎসবটা স্বপ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। জেতাটাই এখন কঠিনে পরিণত হয়েছে। মরিয়াদের দেখাদেখি শক্তিশালী প্রতিপক্ষ পাকিস্তানের বিপক্ষে জামালরা কি করেন সেটাই দেখার অপেক্ষা। হারলে কিন্তু কথাটা উঠবেই। মেয়েরা পারলেও ব্যর্থ পুরুষরা। এই জেদই হয়তো আজ শক্তির টনিক হিসেবে কাজ করবে জেমির শিষ্যদের।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow