Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:২০
‘বাংলাদেশ ভয়ঙ্কর দল’
পাকিস্তানকে সতর্ক করলেন আকরাম
ক্রীড়া প্রতিবেদক
‘বাংলাদেশ ভয়ঙ্কর দল’

এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দলের মিশ্র পারফরম্যান্স। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুর্দান্ত এক জয়ে শুরু। তারপর আফগানিস্তান ও ভারতের বিরুদ্ধে বাজে হার। তবে শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ৩ রানের নাটকীয় জয়ে আবারও উজ্জীবিত হয়েছেন টাইগাররা। সুপার ফোরে আজ শেষ ম্যাচ খেলতে আবুধাবিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। দুই দলের পয়েন্টই ২ করে। ফাইনালে যেতে হলে জয়ের বিকল্প নেই।

টাইগাররা আত্মবিশ্বাসী হলেও আগের ম্যাচে ভারতের কাছে বিধ্বস্ত হওয়ার পর যেন মানসিকভাবেই ভেঙে পড়েছে পাকিস্তান। এশিয়া কাপের শুরু থেকেই সুবিধা করতে পারছে না দলটি। অথচ এই সংযুক্ত আরব আমিরাত হচ্ছে তাদের হোম ভেন্যু। আজ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে পাকিস্তানকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তাদের সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম। পাক কিংবদন্তি বাংলাদেশকে ‘ভয়ঙ্কর দল’ বলে মনে করেন। দুবাইয়ে টি-১০ টুর্নামেন্টে একটি দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। সেখানে ওয়াসিম আকরাম বলেন, ‘বাংলাদেশ খুবই ভালো দল। বাংলাদেশ ভয়ঙ্কর দল। পাকিস্তানের জন্য ম্যাচটা মোটেও সহজ হবে না। এ ম্যাচে জিতেও কিন্তু পাকিস্তানের স্বস্তি নেই। পরের ম্যাচে ফাইনালে ভারতকে মোকাবিলা করতে হবে। তবে আমাদের হাতে যে ক্রিকেটাররা আছে তাদের নিয়েই তো লড়াই করতে হবে। এমন তো নয়, পাকিস্তানে কোনো ব্রাডম্যান বসে আছে তাকে নিয়ে এসেই ম্যাচ জিতবে। আমি পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের একটা কথাই বলব, তোমরা ফলাফলের কথা চিন্তা করো না। কেবল ভয়ডরহীনভাবে নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলো।’

ভারতের বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বেও দাঁড়াতে পারেনি পাকিস্তান। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে সুপার ফোরের ম্যাচেও হারতে বসেছিল। পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের শরীরী ভাষা মোটেও পছন্দ হচ্ছে না আকরামের, ‘পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের দক্ষতার অভাব নেই। কিন্তু তাদের শরীরী ভাষা একদমই পছন্দ হচ্ছে না। একদম ভালো লাগছে না। সবাই কেমন যেন ভীতু ভীতু। আস্থাহীন মনে হয়েছে তাদের। ওদের মুখ দেখেই মনে হয়, ওরা ভীষণ চাপের মধ্যে আছে। আম্পায়ার তাদের বিরুদ্ধে ভুল সিদ্ধান্ত দিচ্ছেন, কিন্তু হাতে রিভিউ থাকার পরও তারা তা কাজে লাগাচ্ছে না। এতেই বোঝা যায় তারা কতটা টেনশনে আছে।’ টেনশনে আছে বাংলাদেশও। ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে বেশ ঝামেলাতেই পড়েছেন টাইগাররা। তামিম ইকবালের অনুপস্থিতি হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে দল। ওপেনিং জুটিতে রান নেই। প্রায় সব ম্যাচেই ব্যর্থ টপ অর্ডার। সবশেষ ম্যাচে ব্যাটিং অর্ডার এলোমেলো করেও লাভ হয়নি। দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলেছে সপ্তম জুটি। ইমরুল কায়েস ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়েই শেষ পর্যন্ত ২৪৯ রান করেছিল বাংলাদেশ।

আজ ওপেনিং জুটিতে পরিবর্তন আসতে পারে। আগের ম্যাচে লিটন দাস রান পেলেও আরেক ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত যেন ব্যর্থতার ষোলকলা পূরণ করে ফেলেছেন। অভিষেকের পর তিন ম্যাচ খেলেছেন। এখন পর্যন্ত ব্যক্তিগত স্কোরকে ডাবল ফিগারে নিয়ে যেতে পারেননি। নাজমুল হোসেনের তিন ইনিংস— ৭, ৭, ৬! তাই মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে একাদশে জায়গা না-ও পেতে পারেন এই তরুণ ক্রিকেটার। তার জায়গায় দেখা যেতে পারে সৌম্য সরকারকে। ওপেনিং জুটির ধারাবাহিক ব্যর্থতার কারণে হঠাৎ দেশ থেকে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ইমরুল কায়েস ও সৌম্যকে। আগের ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করে ইমরুল হঠাৎ পাওয়া সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগিয়েছেন। সৌম্য অবশ্য সুযোগ পাননি। তবে সুযোগ পেলে তা কাজে লাগানোর জন্য মুখিয়ে রয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow