Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৫২
স্বস্তির জয়ে শেখ রাসেলের যাত্রা
সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ
স্বস্তির জয়ে শেখ রাসেলের যাত্রা
আক্রমণের পর আক্রমণে প্রতিপক্ষ আরামবাগকে দিশাহারা করে রাখে শেখ রাসেল -বাংলাদেশ প্রতিদিন

অতীত ভুলে সাফল্যর হাসি হাসতে চায় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। গেল দুই মৌসুমে ফুটবলে কোনো ট্রফি জেতা হয়নি দেশের অন্যতম জনপ্রিয় দলটির। মৌসুমের প্রথম আসরে সেমিফাইনাল ও স্বাধীনতা কাপে রানার্স আপ হয়েছে তারা। শেখ রাসেলের মতো দলের কাছে তা স্বস্তির কিছু নয়। ঘরে তুলতে চায় ট্রফি। তাই দেশসেরা আসর পেশাদার লিগে লক্ষ্য তাদের একটাই শিরোপা। সেই মিশনের যাত্রা হয়েছে ভালোভাবেই।

গতকাল ময়মনসিংহ রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেয়িামে অনুষ্ঠিত এবারের লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শেখ রাসেল ১-০ গোলে হারিয়েছে জায়ান্ট কিলার খ্যাত আরামবাগকে। উজবেকিস্তানের আলীশের আজিজভের গোলে ফেবারিটরা মূল্যবান তিন পয়েন্ট সংগ্রহ করে। শক্তির বিচারে ব্যবধানটা আরও বড় হতে পারত। কিন্তু উদ্বোধনী ম্যাচে জয়টাই ছিল গুরুত্বপূর্ণ।

শুরুতে জয় পেয়ে সামনের ম্যাচগুলোতে শেখ রাসেল আরও গতিময় খেলা খেলবে এই প্রত্যাশা ফুটবলপ্রেমীদের। ফেবারিট ঢাকা আবাহনী, বসুন্ধরা কিংস, সাইফও শুরুতে জয় পেয়েছে। গতকাল পেল শেখ রাসেল। এসব দল ছাড়াও শেখ জামালও এবার শিরোপা রেসে থাকবে। শক্তি ও পারফরম্যান্সের বিচারে তাই বলে। গত দুই লিগে জাল চিনতে বেগ পেতে হয়েছিল শেখ রাসেলের। অথচ গতকাল দেখা গেল অন্যরূপ। গ্যালারিতে তখনো দর্শকরা ঢুকছিল। শুরুর তিন মিনিটের মধ্যেই গোল পেয়ে যায় শেখ রাসেল।

সাইফুল বারী টিটুর শিষ্যরা প্রতিজ্ঞা করেই নেমেছিল জয় পেতেই হবে। তাই শুরু থেকে আশরাফুল ইসলাম রানার নেতৃত্ব দেওয়া শেখ রাসেল গতিময় খেলা খেলতে থাকে। তবে এতটা দ্রুত গোল হবে তা কেই ভাবেনি। তিন মিনিটের নাইজেরিয়ার রাফায়েল বল ঠেলে দেন প্রতিপক্ষের ডি-বক্সের ভিতর। বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে জালে বল পাঠিয়ে দলকে এগিয়ে রাখেন আজিজও।

শুরুতে গোল পেয়ে শেখ রাসেল যেমন উজ্জীবিত হয়ে ওঠে। তেমনিভাবে আরামবাগও দিশাহারা হয়ে যায়। ১ গোলে জয় পেলেও প্রতিপক্ষের হোম ভেন্যুতে নান্দনিক ফুটবল উপহার দিয়েছে শেখ রাসেল। রাফায়েল, অ্যালেক্স, আজিজভের চমৎকার সমন্বয়ে আরামবাগকে অস্থির করে তোলে শিরোপা প্রত্যাশী শেখ রাসেল। বিপলুও অসাধারণ খেলেছেন। তবে গতকাল রিজার্ভ খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামলেও আলোচনায় ছিলেন তরুণ মিড ফিল্ডার সোহেল রানা।

৭০ মিনিটে অ্যালেক্সের বদলে মাঠে নামেন সোহেল রানা। গত নভেম্বরে সড়ক দুর্ঘটনায় স্ত্রী আর শিশু সন্তানকে হারানোর এই প্রথম মাঠে নামলেন তিনি। স্বাভাবিকভাবে এখনো মানসিকভাবে বিপর্যস্ত এই ফুটবলার। তবু যতক্ষণ খেলেছেন দর্শকদের নজর কেড়েছেন। গোলের ব্যবধান আরও বাড়তে পারত। সহজ সহজ সুযোগ হাত ছাড়া করায় তা আর হয়নি। সাইফুল বারী টিটু শুরুতে জয় পাওয়ায় শিষ্যদের ওপর সন্তুষ্ট। তিনি বলেন, আরামবাগ দুর্বল নয়। বড় দলের বায়েন্ট নষ্ট করতে তাদের জুড়ি নেই। এই দলের বিপক্ষে ব্যবধান যা-ই হোক না কেন পুরো পয়েন্ট পাওয়ায় সন্তুষ্ট। আশা করি সামনের ম্যাচে ছেলেরা আরও গুছিয়ে খেলবে।

২০১২-১৩ মৌসুমে শেখ রাসেল লিগ জিতেছিল। সেবারই ফেডারেশন কাপ ও স্বাধীনতা কাপ জিতে ট্রেবল শিরোপার রেকর্ড রয়েছে তাদের। লক্ষ্য এবার লিগে হারানো গৌরব উদ্ধার করা। এখন সামনে পথ চলার ওপরই নির্ভর করবে দলটির সাফল্য।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow