Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৩৬

ক্রীড়া সামগ্রীর মান নিয়ে সংসদে ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ক্রীড়া সামগ্রীর মান নিয়ে সংসদে ক্ষোভ

এমপিদের নামে বরাদ্দ ক্রীড়া সামগ্রীর মান নিয়ে সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সংসদ সদস্যরা। এক সম্পূরক প্রশ্নে ক্রীড়া সামগ্রীর মান নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সরকার দলীয় সদস্য আব্দুল মান্নান। তিনি বলেন, প্রতি বছর এমপিদের নামে ফুটবল, জার্সিসহ যে সব সামগ্রী বরাদ্দ দেওয়া হয়, সেগুলো উন্নত নয়। বরং এতো নিম্নমানের যে এগুলো না দেওয়াই ভালো।

ক্রীড়াসামগ্রীর মান বৃদ্ধি  করতে না পারলে বিতরণ  বন্ধ করে দেওয়া উচিত।

না হলে সরকারের বদনাম  হবে, মন্ত্রণালয়ের বদনাম হবে। এ সময় টেবিল চাপড়িয়ে তার বক্তব্যকে সমর্থন জানান সরকার ও বিরোধী দলীয় এমপিরা।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের গতকালের বৈঠকে এ ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

জবাব দিতে দাঁড়িয়ে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল প্রথমেই বিষয়টি স্বীকার করে নেন। তিনি বলেন, ‘প্রশ্নটি যুক্তিযুক্ত। আমি এই মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সভাপতি থাকাকালীন সময় এ নিয়ে একাধিকবার প্রশ্ন তুলেছেন সংসদ সদস্যরা। তখনো আমরা চেষ্টা করেছি। এবার আমি কথা দিচ্ছি, শুধু মান বৃদ্ধি নয়, ক্রীড়া সামগ্রীর পরিমাণ বাড়ানোরও কার্যকর উদ্যোগ নিব।’

অপর এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে ক্রীড়া মন্ত্রী বলেন,  দেশের সব স্কুলে ক্রীড়া সামগ্রী বরাদ্দের পরিমাণ বৃদ্ধি করে ডাবল করার কার্যকর

উদ্যোগ নেব।

জুডো ও তায়কোয়ান্দো খেলায় নারীরা এগিয়ে : সংসদ সদস্য শিরিন আখতারের (ফেনী-১) সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে  প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জুডো ও তায়কোয়ান্দো খেলায় আমাদের নারীরা এগিয়ে আছে। নিজেদের আত্মরক্ষার প্রস্তুতি হিসেবেই নয় জুডো ও তায়কোয়ান্দো খেলায় দেশীয় ও আন্তর্জাতিক অনেক পুরস্কার নিয়ে আসছি। এই খেলা যাতে জেলা পর্যায়ে এবং তৃণমূল পর্যায়ে আরও বেশি ছড়িয়ে দেওয়া উচিত। আমাদের তৃণমূল পর্যায়ে খেলোয়াড় বাছাই প্রক্রিয়ায় জুডো এবং তায়কোয়ান্দো খেলাটি যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে।’


আপনার মন্তব্য