Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:৪৭

শেখ রাসেল না আবাহনী

আজ ছুটির দিনে সিলেটে বড় ম্যাচ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শেখ রাসেল না আবাহনী
সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে নিজেদের ভেন্যুতে গতকাল অনুশীলনের আগে ক্যামেরায় বন্দী শেখ রাসেলের ফুটবলাররা -বাংলাদেশ প্রতিদিন

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের অষ্টম রাউন্ড মাঠে গড়াচ্ছে আজ। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র মুখোমুখি হবে ঢাকা আবাহনীর বিপক্ষে। হাইভোল্টেজ ম্যাচ। শক্তিশালী দুই দলের লক্ষ্য একটাই শিরোপা। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনী কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থানে আছে। ৭ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে তারা শীর্ষে রয়েছে। একমাত্র ম্যাচটি হেরেছে তারা বসুন্ধরা কিংসের কাছে। এক ম্যাচ কম খেলে কিংস ১৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে। শেখ রাসেলের অবস্থান এখন তিনে। ৬ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১৪। ড্র করেছে সাইফ ও শেখ জামালের বিপক্ষে। বসুন্ধরা কিংস-শেখ রাসেল এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচ হারেনি। সিলেট হোম ভেন্যু শেখ রাসেলের। ঘরের মাঠে তারা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয় পেয়ে এগিয়ে যেতে চাইবে। আবাহনীও নিজেদের অবস্থান মজবুত করতে চায়। ছুটির দিনে দেশসেরা দুই দলের লড়াই। আশা করা যাচ্ছে আজ সিলেটে দর্শকের ঢল নামবে। কে জিতবে আজকের ম্যাচে? শেখ রাসেল না আবাহনী? নাকি পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়বে দুই দল।

পেশাদার লিগে পরিসংখ্যানে জয়ের দিক দিয়ে আবাহনীই এগিয়ে রয়েছে। ছয়বার শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব থাকলেও শেখ রাসেল জিতেছে একবার। তবে বড় ম্যাচে পরিসংখ্যান কোনো যায় আসে না। চাপের লড়াইয়ে কে যে জিতবে বলা মুশকিল। উভয় দলে যেমন ভালো মানের বিদেশি ফুটবলার রয়েছে। তেমনিভাবে স্থানীয়রাও জ্বলে উঠছেন। আবাহনী দ্বিতীয় ম্যাচে বসুন্ধরা কিংসের কাছে বিধ্বস্ত হলেও পরবর্তীতে গুছিয়ে খেলছে। নাইজেরিয়ার সানডে এখন পর্যন্ত ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ না করলেও গোল পেতে সমস্যা হচ্ছে না। স্থানীয় তারকা নাবীব নেওয়াজ জীবন চমৎকার খেলছেন। ১টি হ্যাটট্রিকসহ পাঁচ গোল দিয়ে নিজেকে মেলে ধরছেন ভালোভাবেই। বেলফোর্টও ফর্মে রয়েছেন। আগের ম্যাচে জোড়া গোল করেছেন। সানডেকেও খাটো করে দেখার উপায় নেই। বিশেষ করে বড় ম্যাচে সব সময় আতঙ্ক প্রতিপক্ষদের কাছে। রক্ষণভাগও বেশ সতর্ক।

অতীত ভুলে শেখ রাসেল এবার লিগ জিততে চায়। ২০১২-১৩ মৌসুমটা তাদের জন্য স্মরণীয়। সেবার লিগ ছাড়াও জিতেছে ফেডারেশন কাপ ও স্বাধীনতা কাপ। এক মৌসুমে তিন ট্রফি জেতার কৃতিত্ব শেখ রাসেল ও মোহামেডানের। প্রায় ছয় বছর ধরে কোনো ট্রফির দেখা নেই। অথচ শক্তিশালী দল গড়েই চলেছে। এবার লিগ জেতাটা জরুরি হয়ে পড়েছে তাদের। দুই ড্রয়ে চার পয়েন্ট নষ্ট করলেও শিরোপা রেসেই আছে। আজ ঘরের মাঠে আবাহনীকে হারাতে পারলেই আত্মবিশ্বাসটা বেড়ে যাবে। অভিজ্ঞ কোচ সাইফুল বারী টিটু জানেন আবাহনীকে হারাতে হলে সেরা খেলাটাই খেলতে হবে। আসলে শেখ রাসেল যে মানের দল তাতে আবাহনীকে হারাতেই পারে। সেরা গোলকিপার আশরাফুল ইসলাম রানা, অ্যালেক্স রাফায়েল, রাফায়েল উদোরা, আজিজভ, বিপলুরা যদি ঠিকমতো মেলে ধরতে পারেন তাহলে আবাহনীকে বড় ব্যবধানে হারালেও অবাকের কিছু হবে না।

 

 


আপনার মন্তব্য