Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:৪৮

ম্যাচ কমিশনার মিরনের কাণ্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ম্যাচ কমিশনার মিরনের কাণ্ড

ফুটবলে ম্যাচ কমিশনারের কাজতো নিরপেক্ষ ভূমিকা রাখা। কারও পক্ষ নেওয়া নয়। প্রশ্নটি উঠেছে মিরনকে ঘিরেই আজ সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে শেখ রাসেল ও ঢাকা আবাহনীর হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হবে। এ ম্যাচের ম্যাচ কমিশনারের দায়িত্বে আছেন মিরন। তার বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনেছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পরিচালক (ক্রীড়া) সালেহ জামান সেলিম। সিলেট শেখ রাসেলের হোম ভেন্যু। আবাহনী অতিথি দল। নিয়ম অনুযায়ী আবাহনীর শুধু ম্যাচের আগের দিন স্টেডিয়ামের ভিতরে অনুশীলনের কথা। অথচ সেই নিয়ম নাকি ভাঙা হয়েছে ম্যাচ কমিশনারের সহযোগিতায়। আবাহনী যদি আগে আসে তাদের অনুশীলনের জন্য সিলেট বিকেএসপিতে ব্যবস্থা করা হয়। তা তারা করেননি। বুধবার বিকাল ও গতকাল ফ্লাড লাইটে অনুশীলন করেছে। বুধবার স্টেডিয়ামে অনুশীলনে দেখে শেখ রাসেলের ইভেন্ট ম্যানেজার হাবিবুর রহমান মান্নু অভিযোগ করেন ম্যাচ কমিশনারের কাছে। মিরন তাকে সাফ জানিয়ে দেন এ ব্যাপারে তার কিছুই করার নেই। বাফুফের জাবেদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেন। মান্নু টেলিফোনে আলাপ করেন জাবেদের সঙ্গে। জাবেদ উত্তেজিত কণ্ঠে বলেন বুধবার করলেও ম্যাচের আগের দিনও আবাহনী স্টেডিয়ামে অনুশীলনে করবে। তা না হলে শেখ রাসেলকেও করতে দেওয়া হবে না। মান্নু পরবর্তীতে পুনরায় মিরনের সঙ্গে আলাপ করেন। বলেন, ম্যাচ কমিশনার হিসেবে তো আপনারই দায়িত্ব নিয়মটা দেখা। এতে করে মিরন বেশ উত্তেজিত হয়ে ওঠেন। মান্নুও পাল্টা জবাব দেন আপনি কি কোনো দলের এজেন্ডা নিয়ে এসেছেন। এখানেই শেষ নয়, শেখ রাসেলের হোম ভেন্যু হলেও তারা ফ্লাড লাইটে অনুশীলন করতে পারেনি। গতকাল তারা বিকালে অনুশীলন করলেও আবাহনী করে ফ্লাড লাইটে। পরে শেখ রাসেল খবর নিয়ে জেনেছে মিরন নিজেই লোকজন ডেকে ফ্লাড লাইট জ্বালিয়েছেন।


আপনার মন্তব্য