Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:৪২
চাইনিজ তাইপেকে হারিয়ে মূলপর্বে বাংলাদেশ
অনলাইন ডেস্ক
চাইনিজ তাইপেকে হারিয়ে মূলপর্বে বাংলাদেশ

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে চাইনিজ তাইপেকে ৪-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে মূলপর্বে উঠেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। শনিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচে চাইনিজ তাইপেকে হারানোর মধ্য দিয়ে আসরে প্রথমবারের মতো মূল পর্বে উঠল লাল সবুজ বাহিনী।

 

এর আগে প্রথম ম্যাচে ইরানকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শুরু করা বাংলাদেশ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সিঙ্গাপুরকে ৫-০ ব্যবধানে হারিয়েছিল। আর তৃতীয় ম্যাচে কিরগিজস্তানকে ১০-০ গোলে গুড়িয়ে দেয় বাংলাদেশের তরুণীরা।

এবারের আসরে চাইনিজ তাইপেও দারুণ খেলেছে। তারা কিরগিজস্তানকে ৭-১, আরব আমিরাতকে ৫-০ ও সিঙ্গাপুরকে ৯-০ গোলে হারিয়েছে। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকায় বাংলাদেশ মূলপর্বে উঠল।

শনিবার খেলার মাত্র ১১ মিনিটেই এগিয়ে যায় চাইনিজ তাইপে। বাংলাদেশের জালে বল জড়ান চাইনিজ তাইপের অধিনায়ক সু ইউ সুয়ান।

ম্যাচের ২৫ মিনিটের সময় ডি বক্সের মধ্যে কৃষ্ণা রানীকে ফাউল করায় পেনাল্টি পায় বাংলাদেশ। রেফারি চেন চিয়াও-ইকে হলুদ কার্ড দেখান।

দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন চেন চিয়াও-ই। তাতে ২৫ মিনিটেই ১০ জনের দলে পরিণত হয় চাইনিজ তাইপে। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি শামসুন্নাহার।

৩৭ মিনিটে বাংলাদেশের অধিনায়ক কৃষ্ণা রাণীকে ডি বক্সের মধ্যে আবারও ফেলে দেন সু ইউ সুয়ান। আবারো পেনাল্টি পায় বাংলাদেশ। কিক নেন শামসুনন্নাহার। পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান বাড়ান তিনি।

২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশের মেয়েরা। বিরতির পর ৫৬ মিনিটে দলের হয়ে তৃতীয় গোল করেন কৃষ্ণা। ৭৬ মিনিটের মাথায় কর্নার কিক থেকে উড়ে আসা বল জটলার মধ্যে ক্লিয়ার করতে গিয়ে আত্মঘাতি গোল দিয়ে বসে নিয়েন চিং-উন।

৮৭ মিনিটে একটি গোল পরিশোধ করেন চাইনিজ তাইপের মিডফিল্ডার উ ইউ-জউ। তবে তা পরাজয়ের ব্যবধানই শুধু কমিয়েছে।

৫ সেপ্টেম্বর আরব আমিরাতের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশের মেয়েরা। ম্যাচে হারলেও মূল পর্বে ওঠার ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হবে না।

জয় পেলে অপরাজিত গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ২০১৭ সালের এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্বে খেলতে যাবে বাংলাদেশের মেয়েরা।

বিডি প্রতিদিন/ ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬/ এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow