Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:২৪
অসহায় আত্মসমর্পণ করল বিসিবি একাদশ
অনলাইন ডেস্ক

অসহায় আত্মসমর্পণ করল বিসিবি একাদশ

বরাবরই আফগানিস্তানের জন্য পয়া ভেন্যু ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামটি। এই মাঠেই দুই বছর আগে ২০১৪ সালের এশিয়া কাপের ম্যাচে বাংলাদেশকে তারা ৩২ রানে হারিয়ে ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়েছিল।

আজ শুক্রবার তারা একই মাঠে বিসিবি একাদশকে হারালো ৬৬ রানের বড় ব্যবধানে। ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে আজ দর্শকদের উপস্থিতি ছিল আসলেই চোখে পড়ার মত।

টসে জিতে আফগানদের ব্যাটিং করতে আমন্ত্রণ জানায় বিসিবি একাদশ। আফাগানিস্তান বিসিবি একাদশকে ২৩৪ রানের সাদামাটা লক্ষ্য ছুড়ে দেয়। জাতীয় দলের হয়ে বিভিন্ন সময় খেলার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন আট ক্রিকেটারকে নিয়ে সাজানো হয়েছিল বিসিবি একাদশের এই দলটি। তাই বিসিবি একাদশের জন্য ২৩৪ রানের লক্ষ্যটা তাড়া করা কোনো ভাবেই বড় চাপ নিয়ে আসার কথা নয়।

এর আগে, টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামা আফগানিস্তান মাত্র ৪৭ রানে তিন উইকেট হারালেও নির্ধারত ৫০ ওভারের চার বল বাকি থাকতে ২৩৩ রানের লড়াই করার মত পুঁজি সংগ্রহ করে। বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান হাশমতউল্লাহ শাইদী সর্বোচ্চ ৬৯ রান করেন। বিসিবি একাদশের হয়ে আলাউদ্দিন বাবু ও মিরাজ তিনটি করে উইকেট নেন।

আফগানিস্তানকে জবাব দিতে ব্যাটিং করতে নেমে প্রায় ১৪ ওভারে ৩৯ রান করতে না করতেই চারটা উইকেট হারিয়ে বসে বিসিবি একাদশ। মূলত তখনই খেলার জয় পরাজয় নিশ্চিত হয়ে যায় ঐ সময়ই। কিন্তু বাংলার টাইগার বলে কথা। এত সহজে ঘাড় নোয়াবার নয়।

তখন ক্রিজে ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলে এবারই ডাক পাওয়া নবাগত মুখ মোসাদ্দেক হোসেন। ক্রিজে থাকা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের লড়াইটা শুরু ঐ বিধ্বস্ত অবস্থা থেকে। একদিন আগেই ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত ওয়ানডে দলে ডাক পেয়েছিলেন তিনি। তাকে দলে রেখে নির্বাচকরা যে ভুল করেননি সেটা প্রমান করতে খুব বেশি সময় নিলেন না। ডান-হাতি ব্যাটসম্যান নিজের জাত চেনালেন ৯৭ বলে ৭৬ রানের ইনিংস খেলে। মোহাম্মদ নবীর বলে ইনিংসের ৩৪ তম ওভারে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরার ক্রিজে থেকে হাঁকালেন পাঁচটি চার আর তিনটি ছক্কা।  

মোসাদ্দেক ছাড়া বিসিবি একাদশের আর মাত্র দু’জন ব্যাটসম্যান দুই অংকের রান গড়তে পেরেছেন। তারা হলেন শুভাগত হোম ও মেহেদি হাসান মিরাজ। দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে ৩৪ ও ১৫ রান।

মাত্র ৩৮.১ ওভারেই অলআউট হয়ে যায় বিসিবি একাদশ। অলআউট হওয়ার আগে করতে পারে মোটে ১৬৭ রান। আগামী রবিবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে এই সিরিজটা যে সহজ হবে না, তার প্রমান পাওয়া গেলো প্রস্তুতি ম্যাচেই।


বিডি-প্রতিদিন/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow