Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৪৯
আফগানদের বিরুদ্ধে টাইগারদের কষ্টার্জিত জয়
অনলাইন ডেস্ক
আফগানদের বিরুদ্ধে টাইগারদের কষ্টার্জিত জয়

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে প্রথমে তামিম-সাকিব এবং পরে তাসকিনের নৈপুণ্যে ৭ রানের কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। অথচ এক সময় চোখ রাঙাচ্ছিল পরাজয়।

ঘিরে ধরেছিল শঙ্কার কালো মেঘ। তবে সব শঙ্কা কাটিয়ে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচটি নিজের পকেটে ভরে নিলো টাইগারা।

বাংলাদেশের ২৬৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে ভালোই করেছিল আফগানরা। যদিও এর পেছনে যতটা অবদান আফগানদের তার থেকে বেশি বাংলাদেশের। কারণ ক্যাচ না ফেলতে ম্যাচটা এমন শঙ্কাপূর্ণ হয়ে উঠতে না। তারপরও ৫০ রানের মধ্যে দুই উইকেটে তুলে জয়ের সুবাস পেতে যাওয়া বাংলাদেশের উল্টো শঙ্কায় ফেলে দেয় রহমত শাহ ও হাশমতুল্লাহ শাহিদির ১৪৪ রানের জুটি। তবে দলীয় ১৯০ রানে রহমত (৭১) এবং ২১০ রানে শাহিদি (৭২) বিদায় নিলে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে আফগান ব্যাটিং লাইন আপ। শেষ পর্যন্ত তাসকিনের বোলিং তোপে পড়ে ২৫৮ রানে থামে আফগানদের ইনিংস। ৬৯ রানে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নিয়েছেন তাসকিন। এছাড়া দু'টি করে উইকেট পেয়েছেন মাশরাফি ও সাকিব।

এর আগে, মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে টস জিতে তামিম ও মাহমুদুল্লাহর অর্ধশতকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে সবক'টি উইকেট হারিয়ে ২৬৫ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। এদিন ইনিংসের শুরুতেই শূন্য রানে ফিরে যান সৌম্য সরকার। দৌলত জাদরানের বল পুল করতে গিয়ে মিডউইকেটে সহজ ক্যাচ দেন বাঁহাতি এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। তবে ইমরুল কায়েসকে নিয়ে শুরুর ধাক্কা ভালোভাবেই সামাল দেন তামিম। ৮৪ রানের পার্টনারশীপ গড়ার পর মোহাম্মদ নবীর বলে ৩৭ রানে ফেরেন ইমরুল। এরপর রিয়াদকে নিয়ে দলীয় স্কোরে শতরান যোগ করেন তিনি।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে অন্যপ্রান্ত থেকে দু'জন সতীর্থ ফিরে গেলেও সাললীল ব্যাটিং করেছেন তামিম ইমবাল। টাইগার এই ড্যাশিং ওপেনারের অর্ধশতকের ওপর ভর করে শতরান পার করে বাংলাদেশ। টাইগার ওপেনারের সামনে সেঞ্চুরি হাঁকানোর সুযোগ ছিল। তবে ৮০ রানে আউট হওয়ায় সেটা সম্ভব হয়নি। এরপর ঝড়ো ব্যাটিং করে ইনিংস বড় করতে থাকেন রিয়াদ। তামিমের মতো তিনিও বেশি দূর যেতে পারেননি। দলীয় ২০৩ রানে ২ ছক্কা ও ৫ চারে ৭৩ বলে ৬২ রানে থামেন নির্ভরযোগ্য এই টাইগার মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান। এরপর বাংলাদেশের যে ২৬৫ রান হয়েছে তার প্রায় পুরোটাই সাকিবের অবদান। শেষ দিকে মুশফিক, সাব্বির ও মাশরাফিরা ব্যর্থ হলে ২৬৫ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস।

বিডি-প্রতিদিন/২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow