Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • চাটাইয়ে মুড়িয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান!
  • কেরানীগঞ্জে বাচ্চু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ৭ জনের যাবজ্জীবন
  • ৩ মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদন
  • হালদা নদীর পাড়ের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ
  • আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা
  • কাদেরের বক্তব্যে একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী
  • কলারোয়া সীমান্তে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
  • বিএনপি নির্বাচনে না এলেও গণতন্ত্র অব্যাহত থাকবে: কাদের
প্রকাশ : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:৫১ অনলাইন ভার্সন
তাসকিনের বিরুদ্ধে বিতর্কিত রিভিউ ডেকেছিলেন বিরাট
অনলাইন ডেস্ক
তাসকিনের বিরুদ্ধে বিতর্কিত রিভিউ ডেকেছিলেন বিরাট
সংগৃহীত ছবি

হায়দ্রাবাদ টেস্টে ভারতের কাছে ২০৮ রানের ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল আজ ফিরে এসেছে নিজ দেশে। ভারতের মাটিতে ঐতিহাসিক টেস্টে টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে বুক চিতিয়ে লড়াই করেছে টাইগাররা। প্রথমবারের মতো ভারতে টেস্ট খেলতে গিয়ে ছেড়ে কথা বলেনি বাংলাদেশ। 

ভারতকে জয় পেতে শেষ দিনের শেষ সেশন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে। এই টেস্টে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন বাংলাদেশের পেসার তাসকিন আহমেদ। তবে তার আউট নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। খবর ক্রিকইনফোর। 
  
ক্রিকইনফোর প্রকাশিত সেই প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি তাসকিনের বিরুদ্ধে একটি বিতর্কিত রিভিউ ডেকেছিলেন। কারণ রবিচন্দন অশ্বিনের করা বলটি তাসকিনের প্যাডে লেগে স্লিপে চলে যায়। ভারতের ফিল্ডাররা তখন আউটের জন্য আবেদন করেন । 
  
কিন্তু আম্পায়ার মারিয়াস ইরাসমাস তাতে সাড়া না দিয়ে তার সহকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের আম্পায়ার জেএস উইলসনের শরণাপন্ন হন। উইলসনের সঙ্গে কথা বলে তিনি ডাকেন টিভি আম্পায়ারকে। টিভি আম্পায়ার জানিয়ে দেন বল তাসকিনের ব্যাট স্পর্শ করেনি। জায়ান্ট স্ক্রিনে ‘নট আউট’ লেখা ওঠে।  
  
এরপর ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি তখনই রিভিউ নেন। আর এটা নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। কারণ ডিআরএস এর ৩.২ ধারা অনুযায়ী, পরবর্তী বল না করা পর্যন্ত আগের বলের কোনো রিপ্লে বা স্লো মোশান জায়ান্ট স্ক্রিনে দেখানো যাবে না। 
  
কিন্তু তাসকিন যে বলটিতে আউট হন সেটি জায়ান্ট স্ক্রিনে দেখানো হয়। ফলে টিভি আম্পায়ার প্রথমবার নট আউট ঘোষণা করলেও বিরাট কোহলি সহজেই বুঝতে পারেন এটা লেগ বিফোর আউট হবে। তাই রিভিউ নিয়ে সফল হন কোহলি। 
  


বিডি-প্রতিদিন/ ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/ আব্দুল্লাহ সিফাত-৬

আপনার মন্তব্য

up-arrow