Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১ মার্চ, ২০১৭ ০৬:৩৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
শেষ ওভারের নাটকীয় জয়ে ফাইনালে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স
অনলাইন ডেস্ক
শেষ ওভারের নাটকীয় জয়ে ফাইনালে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স
সংগৃহীত ছবি

পাকিস্তান সুপার লিগের ফাইনালে জায়গা করে নেয় কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স। হাতে চার উইকেট থাকা সত্তেও শেষ ওভারে ৭ রান করতে পারেনি পেশোয়ার জালমি।

শেষ ওভারের শেষ তিন বলে ৩ উইকেট হারিয়ে অবিশ্বাস্যভাবে পেশোয়ার জালমি এই ম্যাচ হেরে গেছে মাত্র এক রানে।

মঙ্গলবার রাতে শারজায় টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স ৭ উইকেটে ২০০ রান সংগ্রহ করে। জবাবে ১৯৯ রানেই গুটিয়ে যায় পেশোয়ার জালমির ইনিংস।  

দলের পক্ষে ওপেনার আহমেদ শেহজাদ মাত্র ৩৮ বলে ৭ চার ৪ ছক্কায় ৭১ রান করেন। এছাড়া কেভিন পিটারসেন ২২ বলে দুই বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৪০ এবং আনোয়ার আলী ১০ বলে ২০ রান করে করেন।  

পেশোয়ারের পক্ষে ৪০ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়ে সেরা পেসার ওয়াহাব রিয়াজ।

২০১ রানের জয়ের লক্ষে পেশোয়ারের শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে পেশোয়ার জালমি। সেখান থেকেই মোহাম্মদ হাফিজ ডেউড মালানকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন। দু'জনের এই জুটিতে আসে ১৩৯ রান। দলীয় ১৫৭ রানের মধ্যে হাফিজ ৪৭ বলে ৫ চার ও ৬ ছক্কায় ৭৭ এবং মালান ৩০ বলে ৮ চার ও এক ছক্কায় ৫৬ রান করে বিদায় নেন। তবে ক্রিজে যতক্ষণ শহিদ আফ্রিদি ছিলেন তখন ম্যাচ হেলে ছিল পেশোয়ারের পক্ষেই।

মাত্র ১৩ বলে চারটি ছক্কা ও একটি চারে ৩৪ রানের ইনিংসে আফ্রিদি পেশোয়ারের জয়কে সহজ করে বিদায় নেন দলীয় ১৯৩ রানে। ১৯তম ওভারের শেষ বলে অধিনায়ক ড্যারেন সামি এক রান নিলে শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন পড়ে ৭ রান।

স্পিনার মোহাম্মদ নুয়াজের প্রথম তিন বলে ৫ রান নেন সামি। কিন্তু পরের তিন বলে ফিরে যান ক্রিস জর্ডান, ওয়াহাব রিয়াজ ও হাসান আলী। এর মধ্যে শেষের দুই উইকেট রানআউট।

 

   
বিডি-প্রতিদিন/ ১ মার্চ, ২০১৭/ আব্দুল্লাহ সিফাত-২২

আপনার মন্তব্য

up-arrow