Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০৯:৪৮

১০০ বলের ক্রিকেটের নিয়ম-কানুন

অনলাইন ডেস্ক

১০০ বলের ক্রিকেটের নিয়ম-কানুন

টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি, টি-টেন'র পর এবার ক্রিকেটে যুক্ত হচ্ছে নতুন সংস্করণ- ১০০ বলের ম্যাচ ‘দ্য হান্ড্রেড’। তবে, এই খেলার নিয়ম অন্য সংস্করণ থেকে অনেকটাই আলাদা। এজন্য নতুন নিয়মও ঘোষণা করেছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। কাউন্টি ক্লাবগুলোর সম্মতি সাপেক্ষে এ নিয়ম-কানুন ঘোষণা করা হয়।

গত বছরই খেলার নিয়মকানুনের খসড়া তৈরি করা ছিল। বাকি ছিল কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবগুলোর অনুমোদন। এবার সেটাও মিলল। শীর্ষস্থানীয় ১৮টি কাউন্টি দলের মধ্যে ১৭টি এই সংস্করণের নিয়ম-কানুনের পক্ষে সম্মতি দিয়েছে। আটটি প্রধান শহরের মাঠে আগামী গ্রীষ্মে প্রথমবারের মতো আনুষ্ঠানিকভাবে বড় পরিসরে মাঠে গড়াবে এই একশ বলের ক্রিকেট। গত বছর এই ১০০ বলের ক্রিকেটের আটটি ভেন্যুর কথা জানিয়েছিল ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। 

সেগুলো হলো- দ্য ওভার, দ্য লর্ড, কার্ডিফ, ওল্ড ট্রাফোর্ড, হেডিংলি, এজবাস্টন, ট্রেন্ট ব্রিজ এবং দ্য এগাস বোল। তবে সবশেষ খবর অনুযায়ী সারে ক্রিকেট ক্লাব তাদের মাঠকে (দ্য ওভাল) এ টুর্নামেন্টের ভেন্যুর তালিকা থেকে বাদ দেয়ার কথাই ভাবছে।

‘দ্য হান্ড্রেড’ নিয়ে ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টম হ্যারিসন বলেন, ‘এটা ক্রিকেটের জন্য খুবই তাৎপর্যপূর্ণ একটা পদক্ষেপ। একশ বলের ক্রিকেটের জন্য আমরা আশাতীত সমর্থন পেয়েছি। গত তিন বছরে এই ফরম্যাটকে আকর্ষণীয় এবং কার্যকরী করে তুলতে আমরা অনেক পরিশ্রম করেছি। যা এখন বাস্তবে রূপ নিতে যাচ্ছে।

এরই মধ্যে ১০০ বলের ক্রিকেট সম্প্রচারকারীদের আগ্রহের কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে বলে জানান হ্যারিসন। তিনি বলেন, ‘এ নতুন প্রতিযোগিতাটি ইতোমধ্যে সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে নতুন চুক্তি স্থাপনে সহায়তা করছে। আমরা ক্রিকেটকে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য যে পাঁচ বছর মেয়াদী পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি তা পূরণে একশ বলের ক্রিকেট বড় অবদান রাখতে পারবে।’

ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ইসিবি নিয়মকানুন প্রকাশ করলেও এখনো টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলের নাম, তাদের জার্সির রং কিংবা খেলোয়াড়দের তালিকা ঠিক করেনি ইসিবি। খুব অল্প সময়ের মধ্যে এগুলোও ঠিক করা হবে বলে জানিয়েছেন হ্যারিসন। টুর্নামেন্টটি হবে পাঁচ সপ্তাহব্যাপী।

ইসিবি ঘোষিত ১০০ বলের ক্রিকেটের নিয়মগুলো হচ্ছে :

* প্রতি ইনিংস হবে ১০০ বল করে।
* প্রতি ১০ বল অন্তর প্রান্ত পরিবর্তন হবে।
* একজন বোলার ৫টি অথবা টানা দশটি বল করতে পারবেন।
* একজন বোলার ম্যাচে সর্বোচ্চ ২০ বল করতে পারবেন।
* প্রতি ইনিংসে একটি পাওয়ার প্লে থাকবে। তা হবে ইনিংসের প্রথম ২৫ বল পর।
* পাওয়ার প্লের সময় ত্রিশ গজের বৃত্তের বাইরে ২ জনের বেশি ফিল্ডার থাকতে পারবে না।
* প্রতি ইনিংসে আড়াই মিনিটের স্ট্র্যাটেজিক টাইম আউট থাকবে।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য