Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১২:৫৪
পুরোনো স্মার্টফোনে পাওয়া যাবে সোনা!
অনলাইন ডেস্ক
পুরোনো স্মার্টফোনে পাওয়া যাবে সোনা!

সহজ একটা রাসায়নিক উপায় ব্যবহার করে পুরোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইস যেমন স্মার্টফোন, কম্পিউটার এবং টেলিভিশন থেকে সোনা পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। পুরোনো স্মার্টফোন, কম্পিউটার এবং টেলিভিশন থেকে সোনা সংগ্রহের নতুন এই রাসায়নিক উপায় আবিস্কার করেছেন এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা।

গবেষকরা বলেন, বাতিল ইলেকট্রনিক ডিভাইস থেকে সোনা আহরণের বর্তমান যে পদ্ধতি রয়েছে তা অদক্ষ এবং স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, যেমন এতে রয়েছে বিষাক্ত রাসায়নিক  সায়নাইড।

বিশ্বের মোট সোনার প্রায় সাত শতাংশ সোনা ইলেকট্রনিক বর্জ্য যেমন পুরোনো মোবাইল ফোন, টেলিভিশন এবং কম্পিউটারের মধ্যে থাকা প্রিন্টেড সার্কিট বোর্ড থেকে পাওয়া যায়। কার্বন ডাই অক্সাইডের নির্গমন কাটা এবং সোনার খনির পরিবেশগত প্রভাব কমাতে কীভাবে বাতিল ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস থেকে উন্নত উপায়ে সোনা আহরণ করা যায়, সে বিষয়ে অনেকদিন থেকেই গবেষণা করে আসছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা।

গবেষণায় মিলেছে সফলতা। তারা একটি সহজ রাসায়নিক উপায়ে আবিষ্কার করেছেন, যেখানে বিষাক্ত রাসায়নিক ব্যবহৃত হয়নি এবং সোনা সংগ্রহ পদ্ধতি আগের পদ্ধতির ‍তুলনায় অনেক বেশি উন্নত ও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর নয়। গবেষকরা জানিয়েছেন, ইলেকট্রনিক বর্জ্য থেকে প্রতিবছর ৩০০ টন পর্যন্ত সোনা উদ্ধার করা যেতে পারে তাদের এই পদ্ধতি ব্যবহার করে। রাসায়নিক ফর্মুলার বিষয়টি প্রকাশ না করা হলেও পদ্ধতিগত দিকটি জানিয়ে দিয়েছেন গবেষকরা। তাদের মতে, প্রিন্টেড সার্কিট বোর্ড প্রথম একটি মৃদু অ্যাসিডের মধ্যে ডোবাতে হবে যা সার্কিডের সমস্ত ধাতব অংশকে আলাদা করতে সাহায্য করবে। এরপর মিশ্রনের মধ্যে একটি তৈলাক্ত রাসায়নিক যোগ করতে হবে যা ধাতব পদার্থের মধ্যে থেকে সোনা আলাদা করতে সাহায্য করবে।

এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের জেসন লাভ বলেন, ‘আমরা এই আবিষ্কার নিয়ে খুবই খুশি। বিশেষ করে আমরা দেখিয়েছি যে, ইলেকট্রনিক বর্জ্য থেকে মূল্যবান ধাতু আমাদের মৌলিক রাসায়নিক গবেষণায় অর্থনৈতিক এবং সামাজিক সুবিধা নিশ্চিত হবে। ’

সূত্র: কলকাতা ২৪

 

বিডি প্রতিদিন/৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬/হিমেল-০৮

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow