Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:১৫
স্যোসাল সাইট 'লিঙ্কডইন'-এ আপনার প্রোফাইল দরকার যে কারণে!
অনলাইন ডেস্ক
স্যোসাল সাইট 'লিঙ্কডইন'-এ আপনার প্রোফাইল দরকার যে কারণে!

প্রথমে জানতে চেষ্টা করি লিঙ্কডইন কি? “লিঙ্কডইন” শব্দটাকে সন্ধি বিশ্লেষণ করলে কি পাওয়া যাবে? লিঙ্কডইন = লিঙ্ক+ইন, “ইন” মানে ভেতর আর “লিঙ্ক” মানে সংযুক্তি বা সংযোগ। তারমানে  যার ভিতরে গেলে লিঙ্ক আছে তাকেই লিঙ্কডইন বলে, নাকি? জী, একদম ঠিক, লিঙ্কডইন অনেকটা ওই রকমই।

লিঙ্কডইন অনেকটা ফেসবুকের মতই। ফেসবুকে যেমন কোথায় খাচ্ছেন, ঘুরছেন এসব শেয়ার করা যায়, তেমনি লিঙ্কডইনে কোথায় কাজ করছেন, কি করছেন, নতুন কি করলেন সেগুলো দেয়া যায়, নোট পাবলিশ করা যায়। তাই নিজেকে তুলে ধরুন লিঙ্কডইনের মাধ্যমে।

লিঙ্কডইন কেন দরকার? কিভাবে এটি কাজ করে?

১। বর্তমানে প্রফেশনালদের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যম হচ্ছে লিঙ্কডইন। পৃথিবীব্যাপী প্রায় ৪০০ মিলিয়ন লিঙ্কডইন ব্যাবহারকারী রয়েছে। পুরো দুনিয়া এগিয়ে যাচ্ছে। আপনি কেন পিছিয়ে থাকবেন? এক প্ল্যাটফর্মে এতো লোক আর কোথায় পাবেন?

২। লিঙ্কডইন একটি বৈশ্বিক যোগাযোগের মাধ্যম। দুনিয়ার যে কোন প্রান্তের যে কোন কোম্পানির যে কোন লোককে পাওয়া সম্ভব লিঙ্কডইন দ্বারা।

৩। উন্নত দেশগুলোতে লিঙ্কডইনের মাধ্যমে অনেকেই পাচ্ছে মনের মত চাকরী।

৪। ওয়েবসাইটের সাথে সংযুক্ত করার মাধ্যমে চাকরীর সব বিজ্ঞপ্তি গুলো আপনি পাবেন লিঙ্কডইনে।

৫। লিঙ্কডইন আপনাকে বাছাই করে বলে দিবে আপনার আসলে কোন কোন চাকরীর জন্য আবেদন করা দরকার।

৬। আপনার ভালো কাজের জন্য আপনাকে আপনার কলিগ বা বস রেকমেন্ড করতে পারে যা কিনা আপনাকে পরবর্তী চাকরী পেতে অনেক সাহায্য করবে।

৭। লিঙ্কডইনে আপনার যে কোন পোস্ট কেউ লাইক, শেয়ার বা কমেন্ট করলে সেটা তার প্রোফাইলেও যারা যুক্ত আছে তাদের হোমপেজে চলে যাবে। অনেকের মধ্যে নিজের ভালো কাজের খবর ছড়িয়ে দিতে লিঙ্কডইনের জুড়ি নেই।

৮। লিঙ্কডইন ব্যবহার করে আপনি সরাসরি আবেদন করতে পারবেন অনেক বহুজাতিক কোম্পানিতে।

৯। দেশী ও বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর পেজ বা গ্রুপ ফলো করলে জানতে পারবেন তাদের আপডেটগুলো।

১০। কোথাও আবেদন করার সময় ওই কোম্পানি কেমন, কারা ওই কোম্পানিতে চাকরী করছেন, তাদের কার কি প্রোফাইল ইত্যাদি নানা তথ্য পাবেন লিঙ্কডইনে।

১১। লিঙ্কডইন আপনাকে দিচ্ছে এন্ডোর্সমেন্টের সুযোগ, যা কি না আপনি কোন কাজে কতটুকু দক্ষ তা আপনার পরবর্তী ইমপ্লয়ারের কাছে সহজে তুলে ধরার সুযোগ দিবে।

১২। লিঙ্কডইনে আপনি আপনার বিভিন্ন ডকুমেন্ট, লেখা, আপলোড করতে পারেন, সেগুলো হতে হবে প্রফেশনাল। সেগুলো দেখে আপনার সম্পর্কে যাতে পজিটিভ আইডিয়া করা যায়।

১৩। নিজের সিভিটি লিঙ্কডইনে আপলোড করে রাখতে পারেন, এতে যারা আপনার প্রোফাইল ভিজিট করবে, তারা চাইলে আপনার সিভিটি দেখতে পারে।

১৪। আপনি লিঙ্কডইনের মাধ্যমে মোট ৫০০০ টি কানেকশানের জন্যে রিকোয়েস্ট করতে পারবেন।

১৫। ইউনিভারসিটির দ্বিতীয় বা তৃতীয় বর্ষে পড়াকালীন সময়ে লিঙ্কডইন প্রোফাইল তৈরি করে নিলে পাশ করার আগেই আপনার তৈরি হয়ে যাবে ১০০০টির বেশি কানেকশান যা কি না আপনাকে ক্যারিয়ারে বিশাল মাইলেজ দিতে পারে।

মনে রাখবেন, বর্তমান যুগে নেটওয়ার্ক বা লিঙ্ক ছাড়া এগোতে পারবেন না। নেটওয়ার্ক ও সুপারিশ এক নয়। অন্যের দৃষ্টি আকর্ষণ করুন, নিজের কাজ দ্বারা। নিজেকে ফুটিয়ে তুলুন সাবলীলভাবে সব কয়টি যোগাযোগ মাধ্যমে।

বিডি-প্রতিদিন/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow