Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১২ অক্টোবর, ২০১৬ ০৩:১১
গ্যালাক্সি নোট ৭ তৈরির ইতি টানল স্যামসাং
অনলাইন ডেস্ক
গ্যালাক্সি নোট ৭ তৈরির ইতি টানল স্যামসাং

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ স্মার্টফোন আর তৈরি করবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শুধু তাই নয়  প্রতিষ্ঠানটি এই ফোন বিক্রি ও বদলে দেওয়াও পুরোপুরিভাবে বন্ধ ঘোষণা করেছে। মঙ্গলবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।

মঙ্গলবার এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি জানায়- ‘স্যামসাং তার গ্যালাক্সি নোট ৭-এর উৎপাদন পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়ার খবরটি আমরা নিশ্চিৎ করছি। ’ মূলত এই ঘোষণার ফলে প্রযুক্তিবিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় পণ্যের শ্রেণিতে সবচেয়ে প্রভাবশালী প্রতিষ্ঠানটির সর্বাধুনিক উপহারের অকালমৃত্যু ঘটল।

স্যামসাং কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ব্যাটারি থেকে আগুন লাগার ঘটনা তদন্ত এবং মান নিয়ন্ত্রণ করে আমরা উৎপাদন পরিকল্পনা পুনর্বিন্যাস করেছিলাম। তবে আমাদের কাছে গ্রাহকের নিরাপত্তার বিষয়টি সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায়। আর তাই গ্যালাক্সি নোট ৭ আর তৈরি না করার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। তৈরির প্রক্রিয়া বন্ধের পাশাপাশি এই ফোন বিক্রি ও বদলে দেওয়ার প্রক্রিয়াও বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গ্রাহকদের নানা আশ্বাস দিয়ে আবারও আগের নোট ৭ হ্যান্ডসেটগুলো বদলে বাজারে "পুরোপুরি নিরাপদ" নোট ৭-এর চালান দেয় স্যামসাং। সেই বদলে দেওয়া এই হ্যান্ডসেটেও দেখা যায় একই বিপত্তি। এবার আগুন ধরে প্লেনে থাকা "পুরোপুরি নিরাপদ" এক নোট ৭-এই, প্লেনের যাত্রা পিছিয়ে যায়। বড় বড় এয়ারলাইনে নোট ৭ নিষেধাজ্ঞার পুনরাবৃত্তিও বাদ যায় না। একে একে বড় একাধিক টেলিযোগাযোগ অপারেটরও এই হ্যান্ডসেটগুলো বিক্রি বন্ধ করে দেয়। এমনকি ভিডিও গেইম জিটিএ ৫-এও এই হ্যান্ডসেট-কে বোমা হিসেবে দেখিয়েও করা হয় তামাশা।

গ্রাহকদের উদ্দেশে স্যামসাং বলেছে, “যাদের কাছে গ্যালাক্সি নোট ৭ এর আসল কিংবা বদলে দেওয়া ফোন রয়েছে, তাদেরকে সেগুলো বন্ধ রাখতে এবং ব্যবহার না করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। ” ওই বিবৃতির পরপরই যুক্তরাষ্ট্রে এটিঅ্যান্ডটি ও টি-মোবাইল গ্যালাক্সি নোট সিরিজের এ ফোন বিক্রি কিংবা বদলে দেওয়া বন্ধের ঘোষণা দেয়। যুক্তরাজ্যেও বদলে দেওয়া বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয় ভোডাফোন ও ইই- এর পক্ষ থেকে।

এর মধ্যে মঙ্গলবার দিনের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত লেনদেনের হিসাবে দেখা যায় বিনিয়োগকারীরা ১৪.৭ ট্রিলিয়ন ইউরো ওন সরিয়ে নেওয়ার পর স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স-এর বাজারমূল্য সাত শতাংশের মতো কমে গেছে।

১০ অক্টোবর এক ধাক্কায় অ্যাপলের শেয়ার মূল্য ২.৩ শতাংশ বৃদ্ধি পায়।  স্যামসাংয়ের দুর্ভাগ্যেই অ্যাপলের শেয়ার মূল্য দ্রুত বাড়তে দেখা গেছে বলেও মন্তব্য করেন বিশ্লেষকরা।

"আমার বিশ্বাস নোট ৭ সংক্রান্ত ঘটনাটি অ্যাপলের শেয়ার বাজারকে প্রভাবিত করবে"- এমনটাই মত ক্রেডিট সুইস-এর বিশ্লেষক কুলবিন্দার গারচা-এর।

আইডিসি-এর তথ্যমতে বিশ্বজুড়ে স্মার্টফোন বাজারে স্যামসাংয়ের মোট শেয়ার ২৩ শতাংশ। এর পরেই ১২ শতাংশ নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে অ্যাপল।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow