Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ মার্চ, ২০১৯ ০৩:০০

এক ঠিকানায় সকল ডিজিটাল সেবা প্রদানে ‘একসেবা-সরকার’

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

এক ঠিকানায় সকল ডিজিটাল সেবা প্রদানে ‘একসেবা-সরকার’

২০২১ সালের মধ্যে একটি পরিপূর্ণ ডিজিটাল সরকার বাস্তবায়নে ২ হাজারের অধিক ডিজিটাল সেবা একটি প্ল্যাটফর্মে নিয়ে এসে নাগরিকের হাতের মুঠোয় সেবা পৌঁছে দিতে ‘একসেবা-সরকার’ কাঠামো তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আইসিটি টাওয়ারে এটুআই সম্মেলন কক্ষে সরকারি দপ্তরসমূহের প্রতিনিধি ও প্রযুক্তি সম্পর্কিত প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের নিয়ে এক ঠিকানায় সকল ডিজিটাল সেবা ‘একসেবা-সরকার’ কাঠামো বিষয়ক একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এর মাননীয় মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এর সচিব এন এম জিয়াউল আলম; মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এর অতিরিক্ত সচিব (সংস্কার অনুবিভাগ) সোলতান আহ্‌মদ এবং সভাপতিত্ব করেন এটুআই এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনীর চৌধুরী। 

এছাড়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি এবং উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর নির্বাহী পরিচালক জনাব পার্থপ্রতিম দেব। 

এটুআই এর প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা জনাব মোহাম্মদ আরফে এলাহী ‘একসেবা-সরকার’ কাঠামো সম্পর্কে বিভিন্ন দিক বিস্তারিত ভাবে উপস্থাপন করেন।

মাননীয় মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ২ হাজারের অধিক ডিজিটাল সেবা তৈরির পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে, যার মাধ্যমে আমরা ‘বিগ ব্যাঙ ডিজিটাল ট্রান্সফর্মেশন’ এর দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। পরিষেবায় পরিবর্তন আনতে সেবা প্রদান ও ব্যবহারের গতানুগতিক পদ্ধতিগুলোকে একটু ভিন্নভাবে চিন্তা করা প্রয়োজন। 

মন্ত্রী বলেন, জাতীয় স্বার্থে এটুআই, ইন্ডাস্ট্রি ও সরকারের একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করার কৌশলকে সাধুবাদ জানাই। আশা করি এটুআই-এর নেওয়া এই উদ্যোগ ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যকে বেগবান করবে। একই সাথে সরকার ও নাগরিক উভয়ের জন্য সেবা গ্রহণ এবং ব্যবহার সহজতর করবে। 

তিনি বলেন, আমরা আমাদের দেশীয় প্রযুক্তি পণ্যকে উৎসাহিত করতে চাই এবং সেজন্য দেশীয় ইন্ডাস্ট্রিগুলোকে এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

অন্যদিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘কানেক্টেড গভর্নমেন্ট’-এর ধারণা মাথায় নিয়েই ‘একসেবা-সরকার’ তৈরি করা হয়েছে যেটা সরকার ও নাগরিককে ডিজিটাল সিস্টেম ব্যবহার করতে এবং সেবা পেতে সহায়তা করবে। এই উদ্ভাবনী প্ল্যাটফর্ম ডিজিটাল সল্যুশন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানসমূহকে মানসম্মত, কার্যক্ষম ও টেকসই সল্যুশন তৈরিতে সহায়তা করার পাশাপাশি সরকারের ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশনকে ত্বরান্বিত করবে।

কর্মশালায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বেসিস সভাপতি জনাব সৈয়দ আলমাস কবির এবং বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের প্রতিনিধিবৃন্দ, প্রযুক্তি নির্ভর ইন্ডাস্ট্রির প্রতিনিধিবৃন্দ ও গণমাধ্যম কর্মীগণ।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য