Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ জুলাই, ২০১৬ ২২:৫৯
নম্বরবিহীন মোটরসাইকেল জব্দ অভিযান
শাহজাদা মিয়া আজাদ, রংপুর
নম্বরবিহীন মোটরসাইকেল জব্দ অভিযান

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও নগরী যানজটমুক্ত রাখতে জেলা পুলিশ এবং সিটি করপোরেশন পৃথকভাবে নম্বরবিহীন মোটরসাইকেল ও অটোরিকশা জব্দ অভিযান শুরু করেছে। গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া অভিযানে এ পর্যন্ত দেড় শতাধিক অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম গোলাম কিবরিয়া জানান, নগরীকে যানজটমুক্ত রাখতে এ অভিযান শুরু হয়েছে। নগরীর প্রধান সড়কে নম্বরবিহীন ও ভুয়া নম্বর লাগিয়ে অটোরিকশা চলাচল করায় যানজটে নগরবাসীর চরম দুর্ভোগ হচ্ছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে নম্বরবিহীন অটোরিকশা জব্দ করার পর চালকদের ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে নিবন্ধন নম্বর ভুয়া কি না, তা পরীক্ষা-নিরীক্ষাও করা হচ্ছে। তবে যারা নগরীর বাইরে অটোরিকশা চালাবে বলে মুচলেকা দিচ্ছে তাদের অটো ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। এরপর ওই অটোরিকশা ধরা পড়লে তা বাজেয়াপ্ত করা হবে। অভিযানের কারণে নম্বরবিহীন অটোরিকশা চলাচল কমে গেছে। এরপরও গত তিন দিনে ৫৯টি অটোরিকশা জব্দ করা হয়েছে বলে জানান ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম কিবরিয়া।   অপরদিকে জেলা ট্রাফিক পুলিশের উদ্যোগে র‌্যাবের সহযোগিতায় প্রতিদিন নগরীর পার্ক মোড়, মডার্ন মোড়, সাতমাথা, মেডিকেল মোড়, মেডিকেল পূর্বগেট, জিলা স্কুল মোড়, জাহাজ কোম্পানি মোড়, লালবাগ, পায়রা চত্বর, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, শালবন মোড়, পার্কের মোড়ে চেক পোস্ট বসিয়ে ৭২টি নম্বরবিহীন মোটরসাইকেল জব্দ করা হচ্ছে। জেলা পুলিশের ট্রাফিক পরিদর্শক ওয়াজ নবী জানান, ৭২টি নম্বরবিহীন মোটরসাইকেল জব্দ করে ১৪০টি মামলা করা হয়েছে।   অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল ফারুক বলেন, দেশে বর্তমানে যে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড সংগঠিত হচ্ছে তার অধিকাংশ ক্ষেত্রে নম্বরবিহীন মোটরসাইকেল ব্যবহার করা হচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে নম্বরবিহীন মোটরসাইকেল জব্দ করে মামলা দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া একই মোটরসাইকেলে দুজনের বেশি আরোহী থাকলে তাদেরকেও আইনের আওতায়

নেওয়া হচ্ছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow