Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:৪২
আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপনের দাবি
মহিউদ্দিন মোল্লা, কুমিল্লা
আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপনের দাবি
কুমিল্লায় স্বল্প পরিসরে কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের কাজ হচ্ছে

কুমিল্লা মহানগরী সংলগ্ন শাসনগাছায় আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন কৃষক ও সচেতন মহল। কৃষি বিভাগের সূত্র মতে, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর নিয়ে বৃহত্তর কুমিল্লা অঞ্চল। মেঘনা প্লাবিত বিস্তীর্ণ অঞ্চল নিয়ে বৃহত্তর কুমিল্লা। এখানে রয়েছে মাঝারি উঁচু ও উঁচু ভূমি। ভূ-প্রকৃতি ও আবহাওয়ার কারণে এখানে বিভিন্ন সবজি ও ফল চাষের জন্য অত্যন্ত উপযোগী। এ ছাড়া এ অঞ্চলে আলু, গম, ভুট্টা, ডাল, তৈল, মসলাসহ অন্যান্য ফসল চাষের জন্য বিখ্যাত। অন্য অঞ্চলের চেয়ে এ অঞ্চলের কৃষকরা শিক্ষায় অনেক এগিয়ে। নতুন প্রযুক্তি গ্রহণেও তারা অপেক্ষাকৃত অগ্রসর। ২০০৭ সালে এখানে ছোট পরিসরে একটি কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র না থাকায় এ অঞ্চলের কৃষকরা পিছিয়ে পড়ছে। তারা চাষাবাদের জন্য উন্নতমানের বীজ, চারা, কলম ও প্রশিক্ষণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা কৃষক লীগ সভাপতি নির্মল পাল বলেন, কুমিল্লার মাটি অনেক উর্বর। কৃষকও অনেক পরিশ্রমী। পর্যাপ্ত সহযোগিতা পেলে এ এলাকার কৃষক দেশের অর্থনীতিতে অনেক বেশি ভূমিকা রাখতে পারত। কুমিল্লায় একটি আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন এখন সময়ের দাবি।

কুমিল্লা কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এ কে এম শামছুল হক বলেন, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ২১০টিরও বেশি ফসল নিয়ে গবেষণা করে। আঞ্চলিক কেন্দ্র হলে সেখানে অনেক ফসল নিয়ে কাজ করা যাবে। কিন্তু স্থান ও বরাদ্দের স্বল্পতার কারণে কুমিল্লায় উল্লেখযোগ্য কাজ করা যাচ্ছে না। এখানে আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপিত হলে কৃষির উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করা যাবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow