Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২২:১০
শিক্ষাঙ্গন ঘিরে বখাটেদের উৎপাত
আফজাল, টঙ্গী
শিক্ষাঙ্গন ঘিরে বখাটেদের উৎপাত

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন এলাকায় স্কুল-কলেজের আশপাশ ঘিরে বখাটেদের উৎপাত বেড়েছে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আশপাশে বখাটেদের অবস্থান এখন চোখে পড়ার মতো।

প্রশাসনিকভাবে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ায় দিন দিন এর সংখ্যা বাড়ছে। আর এতে নাজেহালের শিকার হচ্ছে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। বখাটেদের এই বিচরণ বন্ধ করতে পুলিশের নিয়মিত টহলের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার দাবি সচেতন মহলের।

সরেজমিন ঘুরে জানা গেছে, নগরীর বিভিন্ন এলাকার মধ্যে টঙ্গী সফিউদ্দিন সরকার একাডেমি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, টঙ্গী পাইলট স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজ, দত্তপাড়া সাহাজউদ্দিন সরকার উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজ, টঙ্গী বাজার এলাকায় সিরাজউদ্দিন সরকার বিদ্যানিকেতন অ্যান্ড কলেজ, শিলমুন আবদুল হাকিম মাস্টার উচ্চ বিদ্যালয়, জয়দেবপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, গাজীপুর সরকারি মহিলা কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ঘিরে বখাটেদের বিচরণ আগের চেয়ে বেড়েছে। শিক্ষার্থীরা স্কুলে প্রবেশ কিংবা ছুটির সময় বখাটেরা স্কুল গেট ও তার আশপাশে রোমিও সেজে অবস্থান করে। সুযোগ বুঝে স্কুল ও কলেজগামী ছাত্রীদের অশালীন উক্তি ছুড়ে দিচ্ছে। বখাটেদের এসব অশালীন উক্তি স্কুল-কলেজগামী ছাত্রীরা নীরবে সহ্য করে গন্তব্যে যাচ্ছে। বিষয়টি ওপেন সিক্রেট হলেও এ ব্যাপারে কোনো প্রতিরোধ না থাকায় তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। বখাটে যুবকরা বেশির ভাগই চিহ্নিত। আবার অনেকেই এলাকাভিত্তিক অমুক গডফাদার, তমুক দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত পরিচয় দিয়ে অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। ছাত্রীদের মধ্যে অনেকেই বখাটে দ্বারা উৎপাতের শিকার হলেও লোকলজ্জার ভয়ে কেউ ঘটনা প্রকাশ করছে না। অভিভাবকরাও সন্ত্রাসী প্রকৃতির বখাটের দ্বারা পরবর্তীতে আরও বেশি উৎপাতের আশঙ্কায় বখাটেদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগও করছেন না। এতে ছাত্রীরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। ফলে এসব প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত ছাত্রীদের অভিভাবকরা থাকেন দুশ্চিন্তায়।

ক্ষুব্ধ শিলমুন এলাকার অভিভাবক সাফিয়া বেগম বলেন, সকালে বাচ্চা নিয়ে স্কুলে ঢুকার সময় স্কুল গেটে বহিরাগত ছেলেরা অনেকটাই বিরক্ত করে। টঙ্গী আবদুল হাকিম মাস্টার উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, স্কুলের সামনে বখাটেদের অবস্থানের সময় টহল পুলিশ একটু অভিযান চালালে এর প্রতিকার হয়। টঙ্গী সিরাজউদ্দিন সরকার বিদ্যানিকেতনের অধ্যক্ষ ওয়াদুদুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে অভিভাবকদের সচেতন করা হয়েছে। পুলিশি টহল জোরদার হলে বখাটেদের উৎপাত বন্ধ হবে।

জয়দেবপুর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, স্কুল ছুটির সময় বখাটেদের উৎপাত থেকে রেহাই পেতে হোন্ডা টহল পার্টি ও মোবাইল পার্টি নিয়মিত কাজ করে। এমনকি কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটলে তা দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow