Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৩৮
বেহাল
লালদীঘি মোড়ের বেহাল অবস্থা
রেজা মুজাম্মেল, চট্টগ্রাম
লালদীঘি মোড়ের বেহাল অবস্থা

চট্টগ্রাম নগরের লালদীঘির উত্তর পশ্চিম মোড়। এই মোড়ের পশ্চিমেই আছে চট্টগ্রাম আদালত ভবন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কার্যালয় এবং জনবহুল ব্যস্ততম জহুর হকার মার্কেট। পাশেই আছে বহুতল বিশিষ্ট বিপণিবিতান। কিন্তু অতি জরুরি ও ব্যস্ততম এই মোড়ের একটি বড় অংশে প্রায় সময়ই জমে থাকে ময়লাযুক্ত পানি। এখানেই দীর্ঘদিন ধরে আছে একটি ডাস্টবিন। ডাস্টবিনের বাইরে পড়ে থাকে দুর্গন্ধযুক্ত আবর্জনা।  চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নগরের সড়ক ও মোড় সংস্কার এবং পরিচ্ছন্ন করার কাজ করলেও এই মোড়টির অবস্থা দীর্ঘদিন ধরে বেহাল। ফলে দুর্ভোগ ও ভোগান্তি সঙ্গী হয়েছে স্থানীয় ব্যবসায়ী, পথচারী ও যানবাহনের। সরেজমিন দেখা যায়, এই মোড়ে এলোমেলোভাবে পড়ে আছে আবর্জনা।  সড়কেই জমে আছে কাদাপানি। আবর্জনার কারণে মূল সড়কের অর্ধেক প্রায়ই থাকে অব্যবহৃত। আবার সড়কটিও ছোট-বড় খানাখন্দে ভরপুর। প্রতিনিয়তই আবর্জনার দুর্গন্ধ ছড়ায়। দূষিত হয় পরিবেশ। এসব কারণে সড়কের এই মোড় দিয়ে যানবাহন ও পথচারীদের চলাচল দায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। যানবাহন চলতে হয় ধীর গতিতে। ফলে লেগে যায় যানজট। দুর্ভোগে পড়েন পথচারী ও যাত্রীরা। স্থানীয় আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী বলেন, ‘লালদীঘি মোড়ে উত্তর পশ্চিম পাড়ের মোড়ের ওই জায়গাটিতে উঁচু করার কাজ চলছে। এটি শেষ হলে এই সমস্যা আর থাকবে না। তা ছাড়া এই মোড়ের ডাস্টবিনটিও অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া বা বাইরে আবর্জনা না পড়ার মতো পরিকল্পনা আছে সিটি করপোরেশনের। আশা করছি, এসব কাজ শেষ হলে মোড়টির আর কোনো সমস্যা থাকবে না। স্থানীয় ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, কেবল চট্টগ্রাম নয়, জাতীয়ভাবে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি সরকারি স্থাপনার প্রবেশপথেই এমন দুর্গন্ধ কখনো মানায় না। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে গত প্রায় ছয় মাস ধরেই এমন অবস্থায় আছে জায়গাটি। অথচ এই লালদীঘি মাঠেই প্রতিনিয়ত অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে বিভিন্ন মৌসুমি মেলা, রাজনৈতিক জনসভা ও সামাজিক নানা আন্দোলন-কর্মসূচি। কিন্তু আশ্চর্যজনক সত্য হলো— এই জায়গাটি দিয়ে চলাচল করাই দুরূহ। আমরা মনে করি, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করা জরুরি। বেহাল অবস্থা থেকে উন্নয়ন করলে স্থানীয়রা যথেষ্ট উপকৃত হবেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow