Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : রবিবার, ৮ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৭ জুলাই, ২০১৮ ২৩:৫১
গোলকিপারের নামে ঈগল ছানা
গোলকিপারের নামে ঈগল ছানা
bd-pratidin

মাঠজুড়ে দুই দলের খেলোয়াড়রা বল পায়ে দৌড়ান জয়ের নেশায়। তবে গোলপোস্ট আগলে রাখার দায়িত্ব থাকে একজন রক্ষকের। মাঠের ২০ জনের বল কাড়াকাড়িতে কোন ফাঁকে বল গিয়ে গোলবারের জালে আটকায় তা ঠিক রাখা এক কঠিন কাজ। এজন্য একজন ভালো গোলকিপারকে পালন করতে হয় ঈগল পাখির মতো দূরদৃষ্টি সম্পন্ন ভূমিকা। বল বিপদসীমায় ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে ছোঁ মেরে ধরার কাজটা তাকেই করতে হয়। তবে এই কাজে যে সবাই পটু হন তা কিন্তু নয়। কেউ কেউ দারুণ দক্ষতার পরিচয় দেন। সম্প্রতি এমন দক্ষতা দেখিয়ে আলোচনায় এসেছেন রাশিয়ান গোলকিপার ইগোর আকিনফিভ। বিশ্বকাপের আয়োজক হলেও খোদ রাশিয়াও হয়তো আগে ভাবতে পারেনি তাদের দেশ খেলবে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে। অথচ দ্বিতীয় রাউন্ডে স্পেনকে হটিয়ে দেওয়াটা তাদের কাছে মামুলি ছিল। এ ঘটনার মূল নির্ভরতার জায়গা ছিল ইগোর আকিনফিভ। তার ওপর ভরসা করে পুরো দল মাঠ দাপিয়ে বেড়িয়েছে।

 আকিনফিভের এই কৃতিত্ব সবার কাছে স্বীকৃত। তার সম্মানে রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর একটি চিড়িয়াখানায় সদ্যোজাত এক ঈগলের নাম রাখা হয়েছে ‘ইগোর আকিনফিভ’। মূলত ঈগলের মতো ক্ষিপ্র গোলকিপিং করে দলকে শেষ আটে তোলায় আকিনফিভের নামেই রাখা হয়েছে পূর্ব ইউরোপ-মঙ্গোলিয়ার বিশেষ প্রজাতির এই ঈগলের নাম।

চিড়িয়াখানার নির্বাহী পরিচালক ভেতলানা আকুলভ বলেন, ‘আমাদের ফুটবল দলের অর্জনে আমরা গর্বিত। ফুটবল দলের এমন সাফল্যে নিজেদের যুক্ত করতেই আকিনফিভের নামে ঈগলের নাম রাখার সিদ্ধান্ত হয়।’ তিনি আরও জানান, ‘বিশ্বকাপের মতো আসরে এমন সাফল্যে নিজেদের যুক্ত করার লোভ সামলাতে পারেনি মস্কো চিড়িয়াখানা।’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow