Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:২৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:২৯
খালেদা জিয়ার আসনে শুরু হয়েছে নতুন মেরুকরণ
নিজস্ব প্রতিবেদক
খালেদা জিয়ার আসনে শুরু হয়েছে নতুন মেরুকরণ

আলাউদ্দিন চৌধুরী নাসিমকে ঘিরে ফেনী-১ (ফুলগাজী-পরশুরাম-ছাগলনাইয়া) আসনে নতুন মেরুকরণ শুরু হয়েছে। আওয়ামী লীগের সব নেতা-কর্মী তার সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করেছেন। তারা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেননি। এতদিন যারা দলীয় প্রার্থিতার জন্য প্রচার চালিয়েছেন তারা এখন নাসিমের সঙ্গে এক হয়ে দলের প্রচারণা চালাচ্ছেন। এই কারণে ধারণা করা হচ্ছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপিকে মোকাবিলা করতে নাসিমের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের সমর্থকরা একাত্ম হয়েছে। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক প্রটোকল অফিসার আলাউদ্দিন চৌধুরী নাসিম। তিনি ফেনী আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় থাকলেও এর আগে কখনো ভোটে প্রার্থী হননি। এবার তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন আশা করছেন। এ লক্ষ্যে ৯ নভেম্বর শুক্রবার আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র কিনেছেন আলাউদ্দিন নাসিম। তিনি ভোটের মাঠে নামায় ফেনী-১ আসনে আওয়ামী লীগের অন্যসব মনোনয়নপ্রত্যাশীর সরে দাঁড়ানো এবং তার সঙ্গে একাত্মতার মধ্য দিয়ে ফেনীর রাজনীতিতে সৃষ্টি হয়েছে এক নতুন মেরুকরণ। 

১৯৯১ থেকে ২০০৮ সাল টানা পাঁচবার ফেনী-১ (ফুলগাজী-পরশুরাম-ছাগলনাইয়া) আসনে একচ্ছত্র আধিপত্য দেখিয়েছেন খালেদা জিয়া। বরাবরই বিএনপি অধ্যুষিত এলাকা হিসেবে পরিচিত ফেনী। তবে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপিবিহীন এই আসন থেকে জয়ী হন জাসদ (ইনু) সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার। এতদিন মনোনয়নপ্রত্যাশী হিসেবে তিন আওয়ামী লীগ নেতা মাঠে ছিলেন। কিন্তু মনোনয়নপত্র কেনার সময় দেখা গেল ভিন্ন চিত্র। 

মনোনয়নপত্র সংগ্রহের সময় তারা প্রত্যেকে আলাউদ্দিন নাসিমের সঙ্গে থেকে সমর্থন জানিয়েছেন। মনোনয়নপত্র কেনার সময় নাসিমের সঙ্গে ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খায়রুল বাশার তপন, ছাগলনাইয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল, ঢাকার ফেনী সমিতির সভাপতি শেখ আবদুল্লাহ।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow