Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৮:২৬ অনলাইন ভার্সন
চট্টগ্রাম
অপ্রতিরোধ্য আওয়ামী লীগের তিন হেভিওয়েট
সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম
অপ্রতিরোধ্য আওয়ামী লীগের তিন হেভিওয়েট

এবারও অপ্রতিরোধ্য বর্ষীয়ান শীর্ষ নেতাসহ চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের তিন ‘হেভিওয়েট’ প্রার্থী। চট্টগ্রামের সব কটি রাজনৈতিক দলের মধ্যে বর্ষীয়ান নেতা আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি। অন্য দুই নেতা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও রাঙ্গুনিয়া আসনে দলের প্রার্থী ড. হাছান মাহমুদ ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও রাউজান আসনের প্রার্থী এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী এ তিনজনের রয়েছে এলাকায় সাংগঠনিক ঘাঁটি। তাদের এলাকায় সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড দৃশ্যমান। এ ছাড়া নেতারা এসব এলাকা থেকে একজন এমপি টানা তিনবারসহ তিন নেতাই একাধিকবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তিনটি আসনের প্রতিটিতেই হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। বাস্তবায়িত হয়েছে বড় বড় প্রকল্পও। অন্যদিকে বিএনপির সাংগঠনিক তৎপরতা, প্রার্থীদের গ্রহণযোগ্যতাসহ নানা দিক বিবেচনা করে এবারও পিছিয়ে থাকবেন বিএনপি তথা জোটের প্রার্থীরা। সব মিলিয়ে চট্টগ্রাম উত্তর জেলার মিরসরাই, রাউজান ও রাঙ্গুনিয়ার তিন আসনেই আওয়ামী লীগ তথা মহাজোটের প্রার্থীদের প্রতি সাধারণ মানুষের গ্রহণযোগ্যতা বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই এবারও নৌকা প্রতীকে তাদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন বলে মন্তব্য করেন তৃণমূলের নেতারা। চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম বলেন, মিরসরাই, রাউজান ও রাঙ্গুনিয়ার তিন আসনের প্রার্থীসহ সাত আসনের প্রার্থীদের নির্বাচনে বিজয় নিশ্চিত করতে মাঠে কাজ করছেন নেতা-কর্মীরা। ইতিমধ্যে উত্তর জেলাসহ উপজেলা পর্যায়েও বিভিন্ন জরুরি সভা হয়েছে। সরকারের উন্নয়ন তথা প্রার্থীদের গ্রহণযোগ্যতাও রয়েছে প্রতিটি আসনেই। রাউজান উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ও ক্রীড়া সংগঠক সুমন দে বলেন, ‘রাউজানে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে স্থানীয় এমপি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরীর নেতৃত্বে যেসব উন্নয়ন কর্মকাণ্ড হয়েছে, সেটি দৃশ্যমান। সন্ত্রাসের জনপদ খ্যাত রাউজান আজ গ্রিন-ক্লিন রাউজানে পরিণত হয়েছে। রাউজানে শত শত কোটি টাকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রয়েছে। তবে রাউজানকে আধুনিক রাউজানে পরিণত করতে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করার আহ্বান জানাচ্ছি।’ রাউজানের সংসদ সদস্য ও নৌকার প্রার্থী এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী আবারও অপ্রতিরোধ্য হিসেবে বিজয় লাভ করবেন বলে মন্তব্য করেন সাবেক ছাত্রনেতা ও সংগঠক সারজু মো. নাছেরও। চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়ব বলেন, রাঙ্গুনিয়ায় নৌকার প্রার্থী ড. হাছান মাহমুদ অনেক বছর ধরেই উন্নয়নমূলক কাজ করে আসছেন। সেই কাজের ধারাবাহিকতায় হাজার কোটি টাকার কাজ চলমান রয়েছে। শেখ রাসেল পার্কসহ অনেক দৃশ্যমান কাজ হয়েছে। সব মিলিয়ে এবারও বিজয় হবেন নৌকা প্রার্থী। চট্টগ্রাম উত্তর জেলার চট্টগ্রাম-১ মিরসরাই আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন টানা দুবার এমপি হয়েছেন। তার বিরুদ্ধে বিএনপির প্রার্থী রয়েছেন নুরুল আমীন। এলাকায় তার বিরুদ্ধে রয়েছে শক্তিশালী দলীয় কোন্দল। বিএনপির কোন্দল এবং আওয়ামী লীগের উন্নয়ন বিবেচনা করে নৌকার প্রার্থীই এখানে জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

আপনার মন্তব্য

up-arrow