Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০১
রাজশাহী-৫
হঠাৎ আলোচনায় মেয়র লিটনপত্নী
কাজী শাহেদ, রাজশাহী
হঠাৎ আলোচনায় মেয়র লিটনপত্নী

রাজশাহী-৫ আসনে গত দুই সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী বর্তমান এমপি আবদুল ওয়াদুদ দারা। এর মধ্যে ২০০৮ সালে দারার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম মল। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। তবে আগামী সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন নিয়ে অনেকটা বেকায়দায় দারা। দারার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওই আসনে এবার মনোনয়নপ্রত্যাশী ১০ জন। তবে ওই আসনটিতে হঠাৎ করে আলোচনায় এসেছেন রাজশাহী সিটি করপোরেশন মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের স্ত্রী ও নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী। এলাকায় গুঞ্জন রাজশাহী-৫ আসনে দলের মনোনয়ন চেয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের এই নেত্রী। নগরীতে সমাজসেবায় বিশেষ অবদান আছে এই নারীনেত্রীর। তবে শাহীন আকতার রেনী জানান, তিনি মনোনয়নপ্রত্যাশা করে দলের কোনো ফরম কেনেননি। ওই আসনটিতে তিনি কোনো মনোনয়ন দাবি করেননি। কিছু শুভাকাঙ্ক্ষী তাকে মনোনয়নপ্রত্যাশা করতে বলেছিলেন। কিন্তু তিনি তা করেননি। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘তৃণমূলের কর্মীরা এখন এতটাই ক্ষুব্ধ, সেখানে গিয়ে মাঠ ঠিক করে ভোট করা কঠিন। বর্তমান এমপির সঙ্গে তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের কোনো যোগাযোগই নেই।’ ২০০৮ সালের নির্বাচনে নাদিমের স্থলে বিএনপি থেকে পুঠিয়া উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মণ্ডলকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। এ নির্বাচনে নজরুলকে পরাজিত করে এমপি নির্বাচিত হন ব্যবসায়ী আবদুল ওয়াদুদ দারা। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনেও দারা পুনঃনির্বাচিত হন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow