প্রকাশ : ৩ মার্চ, ২০১৯ ০৯:২৮

পাকিস্তানে হামলায় হতাহতের প্রমাণ পায়নি আলজাজিরা

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানে হামলায় হতাহতের প্রমাণ পায়নি আলজাজিরা

কাশ্মীরের পুলওমায় জঙ্গি হামলায় নিহত জওয়ানদের প্রতিশোধ নিতে পাকিস্তানের ভূখণ্ডে হামলা চালায় ভারতীয় বিমান বাহিনী। জঙ্গিদের লক্ষ্য করে চালানো অভিযানে ৩০০-৩৫০ জন জঙ্গি নিহতের দাবি করা হয় ভারতের পক্ষ থেকে।  

তবে ভারতের দাবি করা বিমান হামলা আসলে বালাকোটে নয় বরং খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের জাব্বা এলাকায় হয়েছে। তবে সেখানে কোনো হতাহতের প্রমাণ পাওয়া যায়নি। যদিও হামলাস্থলের কাছাকাছি জইশ-ই মুহাম্মদ পরিচালিত একটি মাদ্রাসা রয়েছে।

সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে এমন তথ্যই জানিয়েছে আল জাজিরার সাংবাদিকরা।

কাতার ভিত্তির সংবাদমধ্যমটি জানায়, গত ১৩ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে বিমান হামলা চালায় ভারত। হামলার পর দেশটি দাবি করে, পাকিস্তানের বালাকোটে তাদের বিমান হামলায় জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই মুহাম্মদের একটি প্রশিক্ষণ শিবির পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে। এতে ৩০০ থেকে ৩৫০ জন জঙ্গি নিহত হয়েছে। হামলার কথা স্বীকার করলেও এতে কেউ নিহত হননি বলে দাবি করে পাকিস্তান। এছাড়া ওই অঞ্চলে জইশ-ই মুহাম্মদের কোনো প্রতিষ্ঠান নেই বলেও দাবি করে দেশটি।

এরপর সেখানে যান আল জাজিরার সংবাদকর্মীরা। তারা জানান, হামলাস্থল তারা দেখেছেন। স্থানটি পাকিস্তানের খাইবার পাখতুন খাওয়া প্রদেশের জাব্বা এলাকায়। এটি রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে ১০০ কিলোমিটার উত্তরে। সেখানে তারা চারটি বোমা বিস্ফোরণের প্রমাণ পেয়েছেন। এরমধ্যে তিনটি বোমা পড়েছে বনের মধ্যে এবং একটি বোমা পড়েছে কৃষিক্ষেতে। এতে বেশ কিছু পাইন গাছ ধ্বংস হয়েছে। এছাড়া কিছু গাছে বোমার স্প্লিন্টার গেঁথে থাকতে দেখেছেন তারা। এছাড়া সৃষ্টি হওয়া চারটি গর্তের আশপাশে বোমার ধ্বংসাবশেষও দেখেছেন তারা। এতে কেউ নিহত হননি বলে স্থানীয়রা আল জাজিরার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর