Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:২১

শাকিলের জন্য কাঁদছে বন্ধুরা

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম

শাকিলের জন্য কাঁদছে বন্ধুরা

শাকিল দেখতে চেয়েছিলেন তার জন্য কার চোখে জল আসে? আজ তার জন্য বন্ধু ও স্বজনরা কাঁদছে। অথচ সেই তিনি নেই। এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে শাকিল বলেন, বড় ইচ্ছে করে যদি মরে গিয়ে দেখতে পারতাম কে আমার জন্য কান্না করে! ১৩ জুলাই ফেসবুকে এমনই একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন মো. শাকিল খান। এই স্ট্যাটাসই এখন বেশি কাঁদাচ্ছে তার স্বজন ও বন্ধুদের। গত বৃহস্পতিবার রাতে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার চন্দ্রঘোনার কদমতলী ইউনিয়নের হাবিবের গোট্টা এলাকায় চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন মো. শাকিল (১৯)। স্থানীয়ভাবে পরিচিত চাঁদের গাড়ি (জিপ) ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার ওই সংঘর্ষে অটোরিকশার চালকসহ চারজন গুরুতর আহত হয়েছেন। নিহত শাকিল উপজেলার হোছনাবাদ ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের নূরুল আলমের ছেলে। চার ভাই এক বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। তার বাবা ও অপর তিন ভাই থাকেন মধ্যপ্রাচ্যে। তার মৃত্যুতে পরিবারে চলছে শোকের মাতম। তার ফেসবুক স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে কাঁদছে তার বন্ধুরাও। শাকিলের এক বন্ধু ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ভালো থাকিস বন্ধু পরপারে! ৪৫ মিনিট আগেও তোর সঙ্গে দেখা হয়, নানা কথা বলেছিলি, তোর জন্য শুধু আমি না, সব বন্ধু অঝোরে কান্না করছে, তোর মৃত্যু কিছুতেই মানতে পারছি না।’ জানা গেছে,           বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে চাঁদের গাড়ি ও যাত্রীবাহী সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষ হয়। প্রচণ্ড ধাক্কায় অটোরিকশাটি সড়কের পাশের খাদে গিয়ে পড়ে। ঘটনার পর চাঁদের গাড়ির চালক ও সহকারী গাড়ি রেখে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় অটোরিকশার চালকসহ পাঁচজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শাকিলকে মৃত ঘোষণা করেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর