শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০২:১৮

রোকেয়া হল থেকে বহিরাগত মোবাইল চোর আটক

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

রোকেয়া হল থেকে বহিরাগত মোবাইল চোর আটক

রোকেয়া হল থেকে কয়েকটি মোবাইলসহ এশা নামের এক বহিরাগত চোরকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে। গতকাল সকালের দিকে এই ঘটনা ঘটে। হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা ওই চোরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টরদের মাধ্যমে পুলিশে সোপর্দ করেছেন।

আটক হওয়া এশা জানায়, তার গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুরের শফিপুরে। সে কিছুদিন ধরে ঢাকার শেখ শাহ বাজার এলাকায় বসবাস করছে। এর আগে থাকত চিটাগাং রোডে। এশা স্বীকার করেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য হলে ঢুকে এর আগেও সে মোবাইল চুরি করেছে। ঘটনার ব্যাপারে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল সকাল ৮টার দিকে এশা ছাত্রী বেশে রোকেয়া হলে প্রবেশ করে। এরপর হলের ৭ই মার্চ ভবনের ৪০৪, ৫১৫, ৫১৮ নম্বর কক্ষ থেকে ইভা দাস, আলপনা আক্তার, উর্মিলা সিংহের মোবাইল ফোন চুরি করে। এ ছাড়াও হলের অতিরিক্ত ভবনের ২৮ নম্বর কক্ষ থেকে সৈয়দা মাহবুবার ফোনও চুরি করে। পরে গতিবিধি সন্দেহজনক দেখে তাকে আটক করে হল প্রাধ্যক্ষের কাছে সোপর্দ করে ছাত্রীরা। এশাকে হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে অসংলগ্ন কথাবার্তা বলতে থাকে। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক বদরুজ্জামান ভূঁইয়া, সহকারী প্রক্টর সীমা ইসলামের উপস্থিতিতে তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, হলে প্রায়ই চুরি হতো বলে মেয়েরা আমাকে অভিযোগ করত। আজকে চারটি মোবাইলসহ বহিরাগত চোরকে আটক করা হয়েছে। সে (চোর) গ্যাং দলের সদস্য ও বিভিন্ন অপকর্মে যুক্ত। তাকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাহায্যে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। আমরা পুরো ঘটনা জানিয়ে চোরের শাস্তি দাবি করে প্রশাসনকে চিঠিও দিয়েছি।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নীলক্ষেত ফাঁড়ির পরিদর্শক জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, হল কর্তৃপক্ষ আমাদের কাছে চোরকে সোপর্দ করেছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর