Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫০

নির্বাচনী হাওয়া সারা দেশে

চট্টগ্রামে বদলে গেল হিসাব

আপিলে টিকেও প্রার্থিতা পাননি অনেকে

ফারুক তাহের, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে বদলে গেল হিসাব

শেষ সময়ে এসে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থিতায় পরিবর্তন আসায় চট্টগ্রামের চারটি আসনে বদলে যাচ্ছে ভোটের আগাম হিসাব-নিকাশ। এতদিন যারা নিজেদের প্রার্থিতা নিয়ে সন্দেহের দোলাচলে ছিলেন কিংবা চূড়ান্ত মনোনয়ন নিয়ে নিশ্চিন্তে ছিলেন এমন প্রার্থীদের মধ্যে ঘটেছে আমূল পরিবর্তন। ফলে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-৪, চট্টগ্রাম-৫, চট্টগ্রাম-৭ ও চট্টগ্রাম-৮ আসনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থিতায় পরিবর্তন আসায় এর প্রভাব বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের মাঝেও পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। গত শনিবার আপিলের রায়ে চট্টগ্রাম-৪ আসনে উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আসলাম চৌধুরীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হলেও পরে পুনরায় তার মনোনয়ন নামঞ্জুর করা হয়। এতে এই আসনে তার বড় ভাই ইসহাক কাদের চৌধুরীই থাকছেন বিএনপির প্রার্থী। চট্টগ্রাম-৫ আসনে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম। ফলে এই আসনে রিটার্নিং কর্মকর্তার যাচাই-বাছাইয়ে বিএনপি নেতা মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, তার ছেলে ব্যারিস্টার মীর হেলালের মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় কিংবা বিএনপির প্রয়াত নেতা সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের মেয়ে ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানা দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় কেউই ভোটের লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারছেন না। একইভাবে চট্টগ্রাম-৭ আসনে বিএনপি নেতা কুতুব উদ্দিন দলীয় মনোনয়ন লাভ করলেও শেষ অবধি তিনিও আর লড়তে পারছেন না। এই আসনে ঐক্যফ্রন্টের শরিক দল এলডিপির নেতা নুরুল আলমকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এদিকে চট্টগ্রাম-৮ আসনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম মোরশেদ খানের মনোনয়নপত্র প্রথমে বাতিল ও পরে বৈধ বলে বিবেচিত হলেও দলীয় মনোনয়ন তাকে দেওয়া হয়নি। এই আসনে বিএনপি চূড়ান্ত মনোনয়ন দিয়েছে চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবু সুফিয়ানকে। ফলে চট্টগ্রামের এই চারটি আসনে নানা কারণে ভোটের লড়াইয়ের হিসাব-নিকাশে পরিবর্তন আসতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।


আপনার মন্তব্য