শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:৫৭

চকবাজার ট্র্যাজেডি

মর্গের সামনে যমজ সন্তান কাওসারের

নিজস্ব প্রতিবেদক

মর্গের সামনে যমজ সন্তান কাওসারের

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মোহাম্মদ কাওসার আহমেদ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় হয়েছিলেন ১৭তম। পড়াশোনার পাশাপাশি চকবাজারে মদিনা মেডিকেল হল ক্লিনিক চালাতেন কাওসার। স্ত্রী আর ফুটফুটে যমজ সন্তান নিয়ে সংসার কাওসারের। ঘটনার দিন ওই ক্লিনিকেই ছিলেন তিনি। কাওসারের ভাই ইলিয়াস মর্গের সামনে দাঁড়িয়ে কাঁদছিলেন। তিনি বলেন, ‘ও নেই জানতে পেরেছি। লাশ মর্গে আসছে। তবে দেখতে পাচ্ছি না, খুঁজছি।’ ঘটনার খবর শুনেই মর্গে ছুটে আসেন কাওসারের দুই ভাই, মা ও স্ত্রী মুক্তা। তাদের কোলে কাওসারের যমজ ছেলেমেয়ে। স্বজনরা ওদের মুখের দিকে তাকাতে পারছেন না। চোখ বেয়ে অবিরাম ঝরছে পানি। বিলাপ করছেন মা। ইলিয়াস বলেন, ‘আমি, ইয়ামিন, ফয়সাল, কাওসার- আমরা চার ভাই। কাওসার মাদ্রাসায় পড়াশোনা করত। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়। আগুন লাগার সময় ক্লিনিকের ভবনের গেট বন্ধ ছিল। খোলা থাকলে হয়তো ভাইকে পেতাম।’ ওই ক্লিনিকে কাওসারের সঙ্গে ছিলেন তিন দাঁতের চিকিৎসক ও এক রোগী। এর মধ্যে ইমতিয়াজ ও আশরাফুল নামের দুই চিকিৎসক অন্য চিকিৎসকের অধীনে প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন।


আপনার মন্তব্য