শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৩১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ মার্চ, ২০১৯ ২৩:০৩

খুঁজে খুঁজে বাংলাদেশিদের তাড়িয়ে দেওয়া হবে

প্রতিদিন ডেস্ক

খুঁজে খুঁজে বাংলাদেশিদের তাড়িয়ে দেওয়া হবে

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ বলেছেন, এবার ক্ষমতায় এলে পশ্চিমবঙ্গ থেকে খুঁজে খুঁজে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের তাড়িয়ে দেওয়া হবে। তিনি শুক্রবার রাজ্যের বিজেপি প্রার্থীর পক্ষে ২০১৯ সালের লোকসভা  নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেই এই হুঙ্কার দেন।

তার এ হুঙ্কারের আগে প্রথমবারের মতো পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের অন্যতম শরিক দল শিবসেনা। বৃহস্পতিবার শিবসেনা জানায়, ১৫টি লোকসভা আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে তারা। ১১ এপ্রিল প্রথম দফা লোকসভা নির্বাচন। লোকসভা নির্বাচনের ভোটার প্রায় ৯০ কোটি। তাদের আকৃষ্ট করতে বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি ও হুঙ্কার দিয়ে যাচ্ছে বিজেপি।  দলীয় প্রার্থী জন বার্লার সমর্থনে আলিপুরদুয়ারে প্রচারে নামেন অমিত শাহ।

শুরুতেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও তৃণমূল সরকারকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, ‘মোদি সরকার ফের ক্ষমতায় এলেই আমরা পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি আনব। আসামের মতো প্রত্যেক বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীকে খুঁজে বের করে বিতাড়িত করা হবে।’

এ সময় এনআরসি বাস্তবায়ন হলে রাজ্যের সব শরণার্থীর অধিকার সুরক্ষা নিশ্চিত হবে বলে দাবি করেন অমিত শাহ।তিনি আরও বলেন, ‘এনআরসি জনগণের প্রতি আমাদের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির অংশ। হিন্দু ও বৌদ্ধ শরণার্থীদের কোনো ভয় নেই। তাদের দেশছাড়ার দরকার হবে না। তারা যাতে এখানে মর্যাদার সঙ্গে থাকতে পারে আমরা তা নিশ্চিত করব।’

মমতার উদ্দেশে অমিত বলেন, তিনি বাংলার সংস্কৃতি ধ্বংস করে দিচ্ছেন। তার দাবি, মাদ্রাসাকে ৪ হাজার কোটি টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ারদের কোনো গুরুত্ব নেই তার কাছে।

তিনি আরও দাবি করেন, রাজ্যের সব মসজিদের ইমামকে মাসে মাসে ভাতা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু মন্দিরের পুরোহিতদের দেওয়া হচ্ছে না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর