শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪১

রাজশাহীতে দুই খুনে মামলা, গ্রেফতার ৮

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

রাজশাহীতে দুই খুনে মামলা, গ্রেফতার ৮

রাজশাহী মহানগরীতে বুধবার সংঘটিত দুই হত্যাকা-ের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। নগরীর চন্দ্রিমা ও শাহ মখদুম থানায় মামলা দুটি হয়। খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ আটজনকে গ্রেফতার করেছে।

জানা গেছে, পশ্চিমাঞ্চল রেলভবনে ঠিকাদারি নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে বুধবার দুপুরে সংঘর্ষে ছুরিকাঘাতে নিহত হন নগর যুবলীগের সদস্য সানোয়ার হোসেন রাসেল (৩৫)। এ সময় তার ভাই বোয়ালিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রাসেলসহ অন্তত পাঁচজন আহত হন। নগরীর চন্দ্রিমা থানাধীন রেলভবন-সংলগ্ন এলাকায় এ সংঘর্ষের

ঘটনা ঘটে। একই দিন বিকালে নগরীর শাহ মখদুম থানাধীন পবা নতুনপাড়া এলাকায় তুচ্ছ ঘটনায় ছুরিকাঘাতে নিহত হন আবদুল্লাহ আল ফাহিম (১৮) নামে এক কলেজছাত্র। ফাহিম রাজশাহীর শহীদ বুদ্ধিজীবী সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, ফাহিম খুনের ঘটনায় রাতেই তার বাবা গোলাম হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

মামলায় দুজনকে আসামি করা হয়েছে। এরা হলেন- নগরীর ভাটাপাড়া মহল্লার বশির আলমের ছেলে আজমীর হাসান (২২) ও আবুল হোসেনের ছেলে রাকিব হাসান আবির (১৯)। এদের মধ্যে রাকিবকে গতকাল সকালে গ্রেফতার করা হয়। অন্যদিকে নগরীর চন্দ্রিমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. গোলাম মোস্তফা জানান, যুবলীগ নেতা রাসেল খুনের ঘটনায় তার ভাই মনোয়ার হোসেন রনি বাদী হয়ে রাতে মামলা করেছেন। মামলায় আসামি হিসেবে ১৭ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। মামলা দায়েরের পর রাতেই সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরা হলেন- নগরীর শিরোইল কলোনি এলাকার বুলবুল হোসেনের ছেলে রাব্বি (২৫), জয়নালের ছেলে মো. বাপ্পি (১৯), নূর মোহাম্মদ সরদারের ছেলে মো. শাহিন (২৪), মানিকের ছেলে মো. শুভ (২১), বাবু ইসলামের ছেলে চঞ্চল (১৯), জালাল উদ্দিনের ছেলে কালাম উদ্দিন (১৯) এবং আবুল কালাম চৌধুরীর ছেলে মোজাহিদুল ইসলাম অভ্র (১৯)। আরএমপির মুখপাত্র জানান, গ্রেফতার আসামিদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর