শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০১:৪৮

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি গভর্নেন্স চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতা শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে (এনএসইউ) ‘গভর্নেন্স চ্যালেঞ্জ ২০২০’-এর উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা ক্যাম্পাসে এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের এথিক্স অ্যান্ড ডাইভারসিটি ক্লাব এর আয়োজন করছে।বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, এনএসইউ বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা লায়ন বেনজীর আহমেদ, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব জ ই মামুন, বিশ্ববিদ্যালয় ট্রাস্টি বোর্ডের এম এ কাশেম, এম এ হাশেম প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘গভর্নেন্স হলো মানুষের কমিটমেন্ট। এ কমিটমেন্ট রক্ষায় আইনগুলোর সঠিক বাস্তবায়ন করতে হবে, মানুষের কাছে সেবা পৌঁছে দিতে হবে। তবে এ ক্ষেত্রে দুর্নীতি একটি বড় চ্যালেঞ্জ। এটা কমাতে পারলে মানুষের জীবনে স্বস্তি আসবে। আর দুর্নীতি থাকলে গভর্নেন্স ফেল করবে।

ইমদাদুল হক মিলন বলেন, আমরা বাংলাদেশকে অনেক দূরে নিয়ে গেছি। আমাদের গৌরবের অন্ত নেই। ক্রিকেটই এর প্রমাণ। বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন তা তরুণরাই ঘটিয়েছে। ’৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ’৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ ছাত্র-জনতা ও সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণে হয়েছে।

কালের কণ্ঠ সম্পাদক বলেন, আমরা যে স্বপ্ন দেখি তা বাস্তবায়ন করতে চাই। নিজেকে, সমাজকে বদলে দিতে চাই। সমাজে যে অসংগতি আছে তা দূর করতে চাই। এজন্য তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে।

জ ই মামুন বলেন, প্রথমে নিজেকে পরিবর্তন করতে হবে। তাহলে সমাজ ও রাষ্ট্রে পরিবর্তন আসবে। নিজেকে ভালো রাখলেই দেশ ভালো থাকবে।

বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘তরুণসমাজই পারে বাংলাদেশকে পরিবর্তন করতে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তেও তাদেরই এগিয়ে আসতে হবে।

আয়োজকরা জানান, গভর্নেন্স চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতায় সরকারি-বেসরকারি প্রায় ৫০টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষার্থীরা অংশ নেবেন। একেকটি দলে পাঁচজন শিক্ষার্থী থাকবেন। তারা গুড গভর্নেন্স প্রতিষ্ঠায় নানা ধারণা দেবেন। চ্যাম্পিয়ন দল পুরস্কার হিসেবে পাবে ৩ লাখ টাকা।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর