শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ এপ্রিল, ২০২০ ২৩:৩২

স্থবির সিলেটের রাজনীতি

শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট

স্থবির সিলেটের রাজনীতি

ভয়ঙ্কর করোনাভাইরাস যেন সর্বগ্রাসী হয়ে এসেছে। এ ভাইরাস স্থবির করে দিচ্ছে সব কর্মকান্ড। করোনার কারণে থমকে গেছে সিলেটের রাজনীতিও। এ ভাইরাসের ছোবলে সিলেটে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ সব দলের রাজনৈতিক কর্মকান্ড এখন স্থবির। জানা গেছে, করোনাভাইরাসের প্রভাব বাংলাদেশে পড়তে শুরু করার পরপরই সিলেটে রাজনৈতিক কর্মকান্ড গতি হারায়। দেশে করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া যাওয়ার পর গত মার্চের মাঝামাঝি সিলেটে মুজিববর্ষের অনুষ্ঠান স্থগিত করে দেয় জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ। এরপর তাদের সাংগঠনিক কর্মকান্ডও স্থবির হয়ে পড়ে। গত বছরের ৫ ডিসেম্বর জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়েছিল। সম্মেলনে উভয় শাখায় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। চলতি বছরের মার্চে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ হওয়ার জোর গুঞ্জন ছিল। কিন্তু করোনার কারণে পূর্ণাঙ্গ কমিটি আর আলোর মুখ দেখেনি। বর্তমানে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের আওতাধীন ১৩ উপজেলা ও ৪ পৌরসভা এবং মহানগর আওয়ামী লীগের আওতাধীন ২৭ ওয়ার্ড শাখায়ও সাংগঠনিক কর্মকান্ড বন্ধ রয়েছে। এ প্রসঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান বলেন, ‘করোনার কারণে আমাদের সাংগঠনিক কর্মকান্ড আপাতত চলছে না। তবে দলের নেতা-কর্মীরা অসহায় মানুষকে সাহায্য-সহযোগিতা করছেন। করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠার পর সাংগঠনিক কর্মকান্ড গতি পাবে।’ এদিকে, আওয়ামী লীগের মতো অবস্থা বিএনপিতেও। করোনার প্রভাবে সিলেটে বিএনপির সব কর্মকান্ড এখন গতিহীন। গত বছর অক্টোবরে জেলা বিএনপির কমিটি ভেঙে দিয়ে আহ্‌বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই কমিটি সম্মেলনের তোড়জোড়ও শুরু করেছিল। কিন্তু সেই তোড়জোড়ও করোনার কারণে বন্ধ হয়ে আছে। এ ছাড়া জেলার আওতাধীন উপজেলা ও পৌর শাখাগুলোয় নতুন কমিটি গঠনের কাজও এখন স্থবির। মহানগর বিএনপিরও কোনো সাংগঠনিক তৎপরতা নেই। এ প্রসঙ্গে জেলা বিএনপির আহ্‌বায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদার বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক কর্মকান্ড চালানোর সুযোগ নেই। তবে বিএনপি এখন মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে। নেতা-কর্মীরা মিলে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।’ এদিকে, করোনাভাইরাসের কারণে সংকটময় পরিস্থিতিতে সিলেট জেলা জাতীয় পার্টি তাদের সম্মেলন স্থগিত করেছে। জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির বিরুদ্ধে পাল্টা যে কমিটি সামনে এসেছিল, তারাও এখন নিশ্চুপ। অন্যান্য রাজনৈতিক দলেও এখন রাজ্যের নীরবতা। তবে জাসদ, বাসদসহ বামপন্থি কয়েকটি সংগঠন ত্রাণ তৎপরতা চালাচ্ছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর