শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:১১

খুলনায় পলিথিনের যথেচ্ছ উৎপাদন বিপণন

দুই প্রতিষ্ঠানকে সোয়া ৩ লাখ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনা মহানগরীতে নিষিদ্ধ পলিথিনের ব্যবহার উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে। প্রতিটি কাঁচাবাজার, মুদি দোকান, ফুটপাথের দোকান নিষিদ্ধ পলিথিনে ঠাসা। আইন উপেক্ষা করে প্রকাশ্যে চলছে পলিথিনের উৎপাদন বিপণন। অভিযোগ রয়েছে, পরিবেশ অধিদফতরের নিয়মিত অভিযান না থাকায় বিভিন্ন স্থানে বাসা ভাড়া নিয়ে মেশিনের মাধ্যমে নিষিদ্ধ পলিথিন উৎপাদন করা হচ্ছে। আর ব্যবহারের পর ফেলে দেওয়া পলিথিন ব্যাগে নগরীর পানি নিষ্কাশন ড্রেন, ডোবা-নালা সয়লাব হয়ে গেছে। এদিকে নিষিদ্ধ পলিথিন উৎপাদন-বিপণনে জড়িত দুই প্রতিষ্ঠানকে সোয়া ৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাব। গতকাল র‌্যাবের অভিযানে জিরোপয়েন্ট ও লবণচরা এলাকায় পলিথিন উৎপাদনে জড়িতদের আটকের পর এ জরিমানা করা হয়। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)-এর সদস্য এস এম ইকবাল হোসেন বিপ্লব বলেন, খুলনার মাছবাজার, ফলবাজার, কাঁচাবাজার থেকে শুরু করে মুরগি বিক্রেতা সবাই পলিথিন ব্যবহার করে, কোনো বাধা নেই। এ ব্যাপারে পরিবেশ অধিদফতরে স্মারকলিপি দেওয়া হলেও কোনো অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে না। জানা যায়, প্রশাসন ম্যানেজ করে খুলনার বড় বাজারের চারজন ব্যবসায়ী পলিথিনের ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করেন। এ ছাড়া নগরীর লবণচরা এলাকা, রূপসা সেতু সংলগ্ন এলাকা, সোনাডাঙ্গা এলাকায় হাফিজ নগরে ও খালিশপুরের গোয়ালখালীতে নিষিদ্ধ পলিথিনের কারখানার অস্তিত্ব রয়েছে। খুলনা র‌্যাব-৬-এর কোম্পানি কমান্ডার মুহাম্মদ ছুরত আলম জানান, অবৈধভাবে নিষিদ্ধ পলিথিন উৎপাদন-বিপণন করার অপরাধে জিরোপয়েন্ট এলাকার রবিউল হাসান (৪৫)-কে ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা এবং লবণচরা এলাকার সাব্বির করিম প্রিন্স (৩০)-কে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে পরিবেশ অধিদফতর খুলনা বিভাগীয় পরিচালক সাইফুর রহমান খান বলেন, পলিথিনের বিরুদ্ধে নিয়মিতই অভিযান চলে। তবে ব্যবসায়ীরা কৌশল বদলে ছোট পর্যায়ে উৎপাদন ও সরবরাহ করছেন। এর সঙ্গে জড়িতদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর