প্রকাশ : বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:১৯

হেফাজতের নাশকতাকারীদের ছাড় নয় : নানক

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ধর্মপ্রাণ আলেম সমাজ ও হেফাজতের নেতা-কর্মীর সঙ্গে আমাদের কোনো বিরোধ নেই। কিন্তু হেফাজতের নামে যারা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ প্রাঙ্গণ রক্তাক্ত করেছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি অফিস, বিদ্যুৎ অফিস, রেল লাইন পুড়িয়েছেন সেসব নাশকতাকারীকে একচুলও ছাড় দেওয়া হবে না। তান্ডবকারীদের প্রতি দুর্বলতা দেখানোর কোনো সুযোগ নেই। গতকাল দুপুরে কলাবাগান ক্রীড়া চক্র প্রাঙ্গণে স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের ফ্রি অক্সিজেন সেবা সার্ভিস প্রদানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবুর সঞ্চালনায় করোনা মোকাবিলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিসের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি ম রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোবাশ্বের চৌধুরী, খায়রুল হাসান জুয়েল, সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম মাহবুবুল হাসান, দফতর সম্পাদক আজিজুুল হক আজিজ, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক কে এম মনোয়ারুল ইসলাম বিপুল, সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন বাবরসহ স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় ও মহানগর নেতারা। যে কেউ ০৯৬১১৯৯৭৭৭ হটলাইন নম্বরে ফোন করলে স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে ফ্রি অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহ করা হবে।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, যারা ধর্মের নাম ব্যবহার করে এদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের বিপথে নিতে চান তারা মতলববাজ। তাদের বরদাস্ত করা হবে না। আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ ধরনের মতলববাজদের প্রতিহত করতে হবে।

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নানক বলেন, সব হারিয়ে বিএনপি এখন কচুরিপানা ধরে বাঁচার চেষ্টা করছে। সন্ত্রাস-নাশকতা ও নেতিবাচক রাজনীতির কারণে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তাই এদেশের মানুষ বিএনপির কোনো আন্দোলন-সংগ্রামে সাড়া দেয় না। তাদের বলতে চাই, যারা এই দেশকে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা চালিয়েছেন বা যারাই এর সঙ্গে জড়িত তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, জামায়াত, বিএনপি ও হেফাজতে ইসলাম একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ। তারা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে, স্বাধীনতার বিরুদ্ধে, আমাদের জাতীয় সংগীতের বিরুদ্ধে, জাতীয় পতাকার বিরুদ্ধে। তারা বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চায়। তিনি বলেন, কেউ ধর্মকে ঢাল করে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করতে পারবে না। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সরকার অবস্থান নিয়েছে। আইনানুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ধর্মনিরপেক্ষ নীতি বাংলাদেশে থাকবে। বাংলাদেশের মানুষকে নিয়ে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাব।

এই বিভাগের আরও খবর