শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ আগস্ট, ২০২১ ২৩:৪২

রাজশাহীতে প্রস্তুত ডেঙ্গু ওয়ার্ড চট্টগ্রামে বাড়ছে রোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম

রাজশাহীতে প্রস্তুত ডেঙ্গু ওয়ার্ড চট্টগ্রামে বাড়ছে রোগী
Google News

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ বছর প্রথমবারের মতো ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে। সোমবার বিকালে হেলাড়ি স্বপন কর্মকার (২৩) নামে এক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হন। তিনি নগরীর ডিঙ্গাডোবা বাগানপাড়া এলাকার বাসিন্দা। প্রথমে স্বপনকে ৪২ নম্বর ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল। গতকাল ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের একটি অংশকে ডেঙ্গু ওয়ার্ড করা হয়েছে। সেখানে তাকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। তাকে হাসপাতালের চিকিৎসকরা সার্বক্ষণিক চিকিৎসা দিচ্ছেন। নতুন রোগী ভর্তি হলে এখন থেকে সেখানেই রাখা হবে। হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার শামীম ইয়াজদানী বলেন, ‘এখন পর্যন্ত যথেষ্ট কিট মজুদ আছে হাসপাতালে। সেই সঙ্গে চিকিৎসকরাও প্রস্তুত আছেন। আশা করছি করোনার প্রকোপের সময় ডেঙ্গুকেও আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারব।’ স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, রাজশাহী বিভাগে মোট ৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। জনস্বাস্থ্যবিদরা জানাচ্ছেন, এর আগেও রাজশাহীতে ডেঙ্গু তেমন বিস্তার লাভ করতে পারেনি। এর কারণ হিসেবে রাজশাহী পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন নগরী হওয়ায় সমস্যা প্রকট হয়নি। সেই সঙ্গে ঢাকায় ডেঙ্গুর প্রকোপ বেশি হলে রাজশাহীতে এডিস মশার প্রজনন ঠেকাতে নানা উদ্যোগ নেওয়ায় সমস্যার সমাধান হয়। তবে আগে থেকে এবারও সবাইকে প্রস্তুত থাকতে বলছেন জনস্বাস্থ্যবিদরা। রামেক হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. মাহবুবুর রহমান বাদশা জানান, ‘এর আগেও রাজশাহীতে ডেঙ্গু রোগীদের আমরা সেবা দিয়েছি। রাজশাহী পরিচ্ছন্ন নগরী হওয়ায় এখানে সেভাবে ডেঙ্গুর প্রকোপ হয় না।

চট্টগ্রামে আরও দুই ডেঙ্গু রোগী : চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) গতকাল শুরু করেছে মশা মারা কর্মসূচি। এরই মধ্যে চট্টগ্রামে আরও দুই ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে এ দুই রোগী চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে ভর্তি হন। তারা মহানগরের হালিশহর ও চন্দনপুরার বাসিন্দা। গত মাসে চট্টগ্রামে দুজন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান এবং আক্রান্ত হন পাঁচজন। চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. রজত শংকর রায় বলেন, ‘কয়েকদিন আগে চন্দনপুরার ৬৩ বছরের এক বৃদ্ধ ও হালিশহরের ২৮ বছরের এক যুবতী জ্বর নিয়ে ভর্তি হন। রক্ত পরীক্ষায় তারা ডেঙ্গুরোগী শনাক্ত হন। এর মধ্যে ওই যুবতী সুস্থ থাকলেও বৃদ্ধের রক্তের প্লাটিলেট কমে যাচ্ছে।’

এই বিভাগের আরও খবর