শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ আগস্ট, ২০২০ ১৬:৪২
আপডেট : ৭ আগস্ট, ২০২০ ১৬:৪৪

করোনার চিকিৎসা দিচ্ছেন আক্রান্ত চিকিৎসকরা!

মেহেরপুর প্রতিনিধি

করোনার চিকিৎসা দিচ্ছেন আক্রান্ত চিকিৎসকরা!
প্রতীকী ছবি

মেহেরপুরের গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক-নার্সসহ ১০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু তাদের দিয়ে হাসপাতালে ডিউটি করানোর অভিযোগ উঠেছে। 

জানা গেছে, গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক-নার্সসহ করোনায় আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষার কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। আক্রান্তদের সঠিক সময়ে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হচ্ছে না। এমনকি আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের ছুটি না দিয়ে ভয় দেখিয়ে কাজ করানো হচ্ছে। ফলে গাংনী উপজেলায় যেকোনো সময় করোনা ভয়ংকর রূপ নিতে পারে। তাই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় হাসপাতালে কর্মরত স্বাস্থ্যকর্মীসহ সেবা নিতে আসা রোগী ও তার স্বজনরা আতঙ্কে রয়েছেন।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আক্রান্তরা হলেন-উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রিয়াজুল আলম, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সাদিয়া সুলতানা, ডা. হামিদুল ইসলাম, সিনিয়র স্টাফ নার্স আমেনা খাতুন ও তার স্বামী আবু শামা, উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার তানভীর আহমেদ, অফিস সহকারী আসাদুজ্জামান লিটন ও মেডিকেল টেকনোলজি (ল্যাব) সুনিতা রানীর স্বামী অশোক চদ্র বিশ্বাস। এর মধ্যে ডা. রিয়াজুল আলম সুস্থ হয়েছেন। 

আক্রান্ত কয়েকজন চিকিৎসক জানান, করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা নেওয়ার পাঁচ দিন পর ফলাফল পাওয়া গেছে। ওই পাঁচ দিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইনডোর-আউটডোরে রোগী দেখেছেন তারা। তাদের কাছ থেকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন।

করোনা পজিটিভ চিকিৎসক-নার্সের সংস্পর্শে আসা হাসপাতালের অন্যান্যদের হোম কোয়ারেন্টিনে না রাখায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তাদের পরিবারের লোকজন

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রিয়াজুল আলম বলেন, হাসপাতাল তো বন্ধ রাখা যাবে না। সীমাবদ্ধতার মধ্যেও সেবা দিতে হবে।

মেহেরপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. নাসির উদ্দীন জানান, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রিয়াজুল আলমকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর