শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:০৬

যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বগুড়ার ধুনটে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে পল্লী চিকিৎসক ও যুবলীগ নেতা আবদুস সবুরকে (৩৬) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে আবদুস সবুরের লাশ পুলিশ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহত সবুর ধুনট উপজেলা যুবলীগের সদস্য ও নান্দিয়াপাড়ার রহিম বকসের ছেলে।

ধুনট থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পল্লী চিকিৎসক আবদুস সবুরের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের নান্দিয়ারপাড়া এলাকার জনাব আলীর ছেলে নিমগাছী ইউনিয়ন যুবলীগের বহিষ্কৃত সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলামের বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল দুপুরে পরিচিত কেউ মোবাইল ফোনে ডেকে আবদুস সবুরকে পশ্চিম নান্দিয়ারপাড়া এলাকার একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে সবুরকে ফেলে রেখে যায়। চিৎকার শুনে স্থানীয়রা সবুরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সময় সে মারা যায়।

বগুড়ার ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে থানায় নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ধুনট উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ভিপি শেখ মতিউর রহমান জানান, প্রায় ১০ মাস আগে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার হওয়ায় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে কামরুল ইসলামকে বহিস্কার করা হয়েছে। তিনি উপজেলা যুবলীগের সদস্য আবদুস সবুরকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় আসামিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।


আপনার মন্তব্য