Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ জুন, ২০১৯ ১৬:৪৩

লিটনের দুর্দান্ত ইনিংস নিয়ে যা বললেন সাকিব

অনলাইন ডেস্ক

লিটনের দুর্দান্ত ইনিংস নিয়ে যা বললেন সাকিব

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩২২ রানের পাহাড় সমান টার্গেট মাথায় নিয়ে দলীয় ১৩৩ রানে ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এ অবস্থায় চতুর্থ উইকেটে জুটি বাঁধেন সাকিব-লিটন। জয় দিয়ে ম্যাচ শেষে হাসিমুখে মাঠ ছাড়েন সাকিব-লিটন। তাদের ১৩৫ বলে অবিচ্ছিন্ন ১৮৯ রানের জুটিতেই জয়ের স্বাদ নিতে পারে বাংলাদেশ। 

এই ম্যাচে শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলে সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে জয় নিশ্চিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন সাকিব আল হাসান। এতে ম্যাচের বেশির ভাগ আলো নিজের দিকে নিয়ে নিয়েছেন সাকিব। তবে তাকে সঙ্গ দেওয়ার পাশাপাশি মাঠ মাতিয়েছেন লিটন কুমার দাশ। ১৩৬ স্ট্রাইক রেটের ইনিংস। টানা তিন বলে ছক্কা মেরেছেন প্রতিপক্ষের দারুণ গতিময় ফাস্ট বোলারকে। ইনিংস জুড়ে খেলেছেন দাপুটে সব শট। ফাস্ট বোলারকে পুল শটে বল ফেলেছেন গ্যালারিতে, জায়গা বানিয়ে বল উড়িয়েছেন লং অফ দিয়ে, আপার কাটে পার করেছেন সীমানা। 

এতে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে লিটনের জুটি বড় রান তাড়ায় বাংলাদেশকে এনে দিয়েছে দারুণ জয়। চতুর্থ উইকেটে দুজনে গড়েছেন ১৮৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি। ওয়ানডেতে চতুর্থ উইকেটে বাংলাদেশের সেরা জুটি এটি, বিশ্বকাপে যে কোনো জুটিতেই সর্বোচ্চ। ১২৪ রান করা সাকিবের সঙ্গে লিটন অপরাজিত ছিলেন ৬৯ বলে ৯৪ রান করে। সাকিবকে সঙ্গে নিয়ে তার এমন ব্যাটিংয়ে ভর করেই ৫১ বল আগে থাকতে ৩২২ রানের লক্ষ্যে পৌঁছায় বাংলাদেশ।

সাধারণত উদ্বোধনী খেলে অভ্যস্ত লিটন। দলের স্বার্থে বেশ কয়েকবার তিন নম্বর ও চার নম্বরে খেলতে হয়েছিল। কিন্তু এবারই প্রথম ৫ নম্বরে খেললেন তিনি। ব্যাটিং অর্ডার বদলে সাবলীল খেলাটা সহজ নয়। কিন্তু লিটনের খেলা দেখে মনেই হয়নি যে, পজিশন বদলে খেলায় তার কোনো সমস্যা হচ্ছে। খুব কাছ থেকে লিটনের ব্যাটিং দেখেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে লিটনের ৯৪ রানের অনবদ্য ইনিংসের প্রশংসা করে সাকিব বলেন, লিটনের ইনিংসা ছিল চোখ ধাঁধানো, এক কথায় বাধিয়ে রাখার মত।

সাকিব ১২৪ রানের ঝলমলে একটি ইনিংস উপহার দেন। শুধু রানই করেননি। বিশ্ব আসরে নতুন একজনকে যোগ্য সমর্থন দেন। নন-স্ট্রাইকিং প্রান্ত থেকে মুগ্ধ চোখে লিটনের নান্দনিক ব্যাটিং উপভোগ করেন। প্রয়োজন হলেই পরামর্শ দিয়েছেন। সেই অনুযায়ী ব্যাট চালান লিটন।

তাই ম্যাচ শেষে লিটনের প্রশংসা না করে পারলেন না সাকিব। ‘উইকেট খুব সহজ ছিল। আমি ওকে বলেছিলাম, যদি উইকেটে থাকতে পারিস, তাহলে খেলাটা শেষ করা যাবে। প্রথম ১০, ১৫ বল পর যেভাবে সে (লিটন) ব্যাট করেছে, তা ছিল চোখ ধাঁধানো। অপরপ্রান্ত থেকে আমি তার ব্যাটিং উপভোগ করেছি।’

৩২২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে রান রেটের দিকেও লক্ষ্য রাখতে হয় বাংলাদেশকে। এমন অবস্থাতে মূলত লিটনের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের কারণেই চাপমুক্ত হয়ে নিজের ইনিংস বড় করতে পেরেছেন সাকিব, ‘এমন রান তাড়ায় সে (লিটন) কখনোই আমাকে চাপে পড়তে দেয়নি। এটাই তার ইনিংসের সেরা দিক বলব। বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ম্যাচ, তিন-চার ম্যাচ দলের বাইরে বসে থাকার পর মাঠে নামা সহজ নয়। কিন্তু সে যেভাবে চাপ সামলেছে, তা ছিল দুর্দান্ত।'

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য