Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৭:২৯

গলাচিপায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে দমকা হাওয়ার সাথে ভারী বৃষ্টি

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

গলাচিপায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে দমকা হাওয়ার সাথে ভারী বৃষ্টি
ফাইল ছবি

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে উপকূলীয় গলাচিপা উপজেলায় থেমে থেমে ভারী থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। আজ শনিবার দুপুর থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সাথে দমকা হাওয়া বইছে। নদীতে স্বাাভাবিক জোয়ারের চেয়ে দেড় থেকে দুই ফুট উঁচুতে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। সাগরে মাছ ধরা জেলেদের অধিকাংশ তীরে ফিরে এলেও কিছু জেলে এখনও সাগরে রয়েছেন। ঘূর্নিঝড়ের কারনে সবচেয়ে শঙ্কায় রয়েছে কৃষকরা। এসময় গাছ থেকে ধানের শীষ বের হয়। ধান চিটা হয়ে যাওয়ার আশংকা করছেন কৃষকরা। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মো. রফিকুল ইসলাম জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবলায় গলাচিপা উপজেলায় সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। উপজেলার ১০৭টি সাইক্লোন শেল্টার জন সাধারনের জন্য ও ৮টা মুজিব কেল্লা গবাদি পশুর জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যে ২৩ হাজার লোক এসব সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নিয়েছে। অপেক্ষাকৃত দুর্যোগ ঝূঁকিপূর্ণ ইউনিয়ন চরকাজল, চরবিশ্বাস, পানপট্টি, গলাচিপা সদর ইউনিয়ন এবং চরবিশ্বাস ইউনিয়নের বিচ্ছিন্ন দ্বীপ চরবাংলা, গলাচিপা ইউনিয়নের  চর কারফারমায় অতিরিক্ত নজরদারি রাখা হয়েছে। 

এসব ইউনিয়ন ছাড়াও উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান,বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ সরকারি বেসরকারি ভবনগুলো প্রস্তুত রাখা হয়েছে। শুকনো খাবার ও মেডিকেল ক্যাম্পের ব্যবস্থাও প্রস্তুত রয়েছে। এদিকে, ঘুর্নিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির উপজেলা টিম লিডার আবু হেনা মো. শোয়েব আশিস জানান, ১৩৫টি ইউনিট ২৫০৬ স্বেচ্ছাসেবক জনগনকে সচেনতা ও আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়ার জন্য তৎপর রয়েছে।
 


বিডি-প্রতিদিন/ সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য