Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ মার্চ, ২০১৯ ২২:৫৩

উপজেলা নির্বাচন

সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হোক ভোটাভুটি

উপজেলা নির্বাচন

গুরুত্বপূর্ণ স্থানীয় সরকার উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপে আজ ৭৮ উপজেলায় ভোট গ্রহণ হবে। প্রথম ধাপে আজ ৮৭ উপজেলায় নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনটি উপজেলায় চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের দুটি পদে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হওয়ায় এবং আদালতের রায়ে একটি উপজেলার নির্বাচন স্থগিত হয়ে যাওয়ায় আজ ৮৩ উপজেলার নির্বাচন হবে বলে প্রস্তুতি চলছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে শুক্রবার রাতে নির্বাচন কমিশন পাঁচটি উপজেলার নির্বাচন স্থগিত রাখার ঘোষণা দেওয়ায় ৭৮টিতে আজ হবে ভোটযুদ্ধ। ৭৮ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ২১৫, সাধারণ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪০৬ ও সংরক্ষিত (মহিলা) ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৭৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। উপজেলাগুলোর মোট ভোটার ১ কোটি ৫২ লাখ ৭০ হাজার ৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৭৬ লাখ ৩০ হাজার ৫৩৪ আর নারী ভোটার ৭৬ লাখ ৩৯ হাজার ৪৭১ জন। ভোট কেন্দ্র ৬ হাজার ২১৯টি। ভোটকক্ষ ৩৯ হাজার ১৫৯টি। চেয়ারম্যান পদে ১৬, সাধারণ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ ও সংরক্ষিত (মহিলা) ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭ জন ইতিমধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। উপজেলা নির্বাচনে প্রতিপক্ষ দলের প্রার্থী না থাকায় সিংহভাগ উপজেলায় ভোটযুদ্ধ হবে আওয়ামী লীগের অফিশিয়াল প্রার্থীর সঙ্গে বিদ্রোহী প্রার্থীদের। কোনো কোনো উপজেলায় বিএনপির বহিষ্কৃতরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীদের সঙ্গে। দলীয় সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করে উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় বিএনপি থেকে বহিষ্কার করা হলেও স্থানীয় নেতা-কর্মীরা অনানুষ্ঠানিকভাবে বহিষ্কৃতদের পক্ষেই প্রচারণা চালাচ্ছেন। কোথাও কোথাও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা বিএনপিসহ বিরোধী দলের সমর্থনে অফিশিয়াল প্রার্থীকে হারানোর কলাকৌশল সাজিয়েছেন। ফলে বিরোধী দল নির্বাচনে অংশ না নিলেও নৌকার প্রার্থীকে জিতে আসতে হবে দ্বিমুখী চাপ মোকাবিলা করে। নির্বাচন কমিশনের দাবি, তারা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। নির্বাচনের ওপর ভোটারদের আস্থা ফিরিয়ে আনতে সব ধরনের অনিয়ম ও সহিংসতা রোধে নির্বাচন কমিশন সক্রিয় হবেÑ আমরা এমনটিই দেখতে চাই।


আপনার মন্তব্য